অস্ট্রেলিয়াকে হোয়াইটওয়াশ করলো দক্ষিণ আফ্রিকা – BD Sports 24
  • অস্ট্রেলিয়াকে হোয়াইটওয়াশ করলো দক্ষিণ আফ্রিকা

    March 8th, 2020

    স্পোর্টস ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    পচেফস্ট্রুম, ৮ মার্চ: দ্বিতীয়বারের মত ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়াকে হোয়াইটওয়াশ করলো দক্ষিণ আফ্রিকা। গতরাতে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে প্রোটিয়ারা ৬ উইকেটে হারায় অস্ট্রেলিয়াকে। ফলে তিন ম্যাচের সিরিজ ৩-০ ব্যবধানে জিতে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। ২০১৬ সালের অক্টোবরে দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়াকে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করেছিলো প্রোটিয়ারা।

     

    পচেফস্ট্রুমে টস জিতে প্রথমে বোলিং করতে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা। ব্যাট হাতে নেমে ৫৫ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। ডেভিড ওয়ার্নার ৪, অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ২২ ও সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ২০ রান করে ফিরেন।

     

    সতীর্থরা ব্যর্থ হলেও ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন মার্নাস লাবুশেন। গেল বছর টেস্টে চার সেঞ্চুরিতে বড়-বড় ইনিংস খেলা লাবুশেন ওয়ানডেতে নিজেকে মেলে ধরতে পারছিলেন না। অবশেষে ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ ওয়ানডেতেই সেঞ্চুরির দেখা পেলেন। তার সেঞ্চুরিতে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়াতে চাইলেও শেষ পর্যন্ত সেটা সম্ভব হয়নি।

     

    দলকে লড়াকু পুঁিজ এনে দেয়ার পথ তৈরি করতে মিডল-অর্ডারে ডি’আর্চি শর্ট ও মিচেল মার্শকে সঙ্গী হিসেবে পান লাবুশেন। চতুর্থ উইকেটে শর্টের সাথে ৮১ ও পঞ্চম উইকেটে মার্শের সাথে ৫৩ রান যোগ করেন লাবুশেন। এই জুটিতে খেলায় ফিরে অস্ট্রেলিয়া। শর্ট ৩৬ ও মার্শ ৩২ রান করেন।

     

    তবে সপ্তম উইকেটে ঝাই রিচার্ডসনকে নিয়ে মাত্র ৪৩ বলে মূল্যবান ৬৪ রান এনে দেন লাবুশেন। আর এই জুটিতে সেঞ্চুরির স্বাদ নেন লাবুশেন। ৮টি চারে ১০৮ বলে ১০৮ রান করেন লাবুশেন। ২০ বলে অপরাজিত ২৪ রান করেন রিচার্ডসন। ফলে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৫৪ রারে পুঁজি পায় অস্ট্রেলিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকার এনরিচ নর্টি ও জন-জন স্মুটস ২টি করে উইকেট নেন।

     

    অস্ট্রেলিয়াকে হোয়াইটওয়াশ করতে ২৫৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দুই ওপেনার ইয়ানেমান মালান ও অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ হয়েছেন। দলীয় ৫৪ রানের মধ্যে প্যাভিলিয়নে জায়গা করে নেন তারা। মালান ২৩ ও ডি কক ২৬ রান করেন।

     

    দু’ওপেনারের বিদায়ের পর দলের জয়ের পথ তৈরি করেন স্মুটস ও কাইল ভেরিনি। ১০২ বলে ৯৬ রানের দারুন এক জুটি গড়েন তারা। ৫০ বলে ৫০ রান করা ভেরিনিকে ফিরিয়ে দিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে ব্রেক-থ্রু এনে দেন স্পিনার এডাম জাম্পা। এরপর হেনরিচ ক্লাসেনকে নিয়ে ৭৯ রান স্কোর বোর্ডে যোগ করে দক্ষিণ আফ্রিকাকে জয়ের কাছে পৌছে দেন ক্লাসেন-স্মুটস।

     

    স্মুটস ৯৮ বলে ১২টি চারে ৮৪ রান করে আউট হন। ডেভিড মিলারকে নিয়ে ২৭ বল বাকী রেখে দলকে জয়ের বন্দরে পৌছে দেন ক্লাসেন। ১০টি চার ও ১টি ছক্কায় ৬৩ বলে অপরাজিত ৬৮ রান করেন ক্লাসেন। মিলারের সংগ্রহ ছিলো ৩ রান।

     

    ম্যাচসেরা হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার স্মুটস ও সিরিজ সেরা হন একই দলের ক্লাসেন।

     

    ওয়ানডের আগে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছিলো সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। বাসস।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...