অস্ট্রেলীয় টেস্ট দলে ৭ বছরের লেগ স্পিনার – BD Sports 24
  • অস্ট্রেলীয় টেস্ট দলে ৭ বছরের লেগ স্পিনার

    December 5th, 2018

    ক্রীড়া ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    অ্যাডিলেড, ৫ ডিসেম্বর: অস্ট্রেলিয়ার অনুশীলনে নতুন সদস্য। সবুজ প্র্যাকটিস জার্সিতে সেও প্রস্তুত। সবার মতোই ওয়ার্ম আপ করল। অধিনায়ক টিম পেইনের হাত থেকে পেল বহু প্রতীক্ষিত টেস্ট জার্সি। আনন্দে আত্মহারা বছর ছয়েকের আর্চি শিলার। অসি টেস্ট দলের নতুন লেগস্পিনার।

    জাতীয় দলে সুযোগের খবর বহু আগেই পেয়েছিল আর্চি। অস্ট্রেলিয়া দল সে সময় আরব আমিরশাহিতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ খেলছে। হঠাৎই একটা ভিডিও কল আর্চির বাবার ফোনে। উলটোদিকে অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। কথা বলতে চাইলেন আর্চির সঙ্গে। কোচই তাকে খবরটি জানান। প্রথমে আর্চির কাছে জানতে চান ওর প্রিয় ক্রিকেটার কে। তারপর ভিডিও কলে ল্যাঙ্গার বলেন, তোমার জন্য একটা দারুণ খবর। তুমি কি জানো? তোমার খেলার কিছু ভিডিও দেখেছি। ক্রিকেটের প্রতি তোমার আগ্রহ দেখে এবং দক্ষতা দেখে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, বক্সিং ডে টেস্টের স্কোয়াডে তুমি থাকবে। প্রথম একাদশে জায়গা পাবে কিনা এখনই সেই নিশ্চয়তা দিতে পারছি না। ছোট্ট আর্চিও কম যান না। এই অবধি বলার সঙ্গে সঙ্গেই ল্যাঙ্গারকে শুনিয়ে দিলেন, আমি কোহলিকে আউট করব। হাসি থামিয়ে ল্যাঙ্গার আরও বলেন, শুধু তাই নয়, অ্যাডিলেড টেস্টের প্রথম অনুশীলনেও যোগ দেবে তুমি। কথা রাখল অস্ট্রেলিয়া দল। মঙ্গলবার সকলের সঙ্গে অনুশীলন করল আর্চিও।

    ক দিন পর সাত বছর পূর্ণ হবে আর্চি শিলারের। এরপর কত বছর বা বলা ভালো কতদিন! জানা নেই। খুব ছোট্ট থেকেই হৃদরোগে আক্রান্ত আর্চি। লড়াই চলছে তিন সপ্তাহ বয়স থেকে। তিন মাস বয়সের মধ্যে হৃদযন্ত্রে তিনবার অস্ত্রোপচার। এরপর নয় মাস বয়সে। থামেনি। সম্প্রতি আরেকটি অস্ত্রোপচার হয়েছে। এখনো অবধি সব মিলিয়ে ১৩টি অস্ত্রোপচার হয়েছে। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পরিবারের মানসিক প্রস্তুতি থাকে, আর্চিকে সঙ্গে নিয়ে ফিরতে পারেন, আবার উল্টোটাও হতে পারে। বাবা ড্যামিয়েন এবং মা সারা শিলার সবসময়ই ইতিবাচক পরিবেশ রাখার চেষ্টা করেন। সবসময় সম্ভব হয় না। এই বয়সেই মানসিকভাবে অনেক বেশি পরিণত আর্চি। অস্ত্রোপচারের জন্য যাওয়া তার কাছে হাসপাতালে ঘুরতে যাওয়ার মতো।

    সুযোগ পেলেই বাবার সঙ্গে ক্রিকেটে ব্যস্ত হয়ে পড়ে আর্চি। হৃদযন্ত্রে সমস্যার কারণে সবসময় দম পায় না। একটু খেলেই থামতে বাধ্য হয়। অসি স্পিনার নাথান লিয়ন উইকেট নিয়ে যেভাবে সেলিব্রেশন করেন সেটা আর্চির খুব পছন্দের। নিজেও নকল করে। বোলিংয়ে তার আদর্শ লিয়ন। আর্চি নিজে অবশ্য লেগ স্পিনার। শেন ওয়ার্নের মতো বোলিং অ্যাকশন। আর্চি বলছিল, আমার হৃদস্পন্দন বাকিদের তুলনায় মন্থর। অনেক সময়ই স্কুল মিস হয়। নতুন বন্ধু বানানো কঠিন হয়ে পড়ে। আর্চির হাসি ধরে রাখতেই অস্ট্রেলিয়া দলের এই প্রয়াস।- সংবাদসংস্থা

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা