আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই আমরা ভালো করব: ছোটন – BD Sports 24
  • আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই আমরা ভালো করব: ছোটন

    September 14th, 2018

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ১৪ সেপ্টেম্বর: আগামীকাল শনিবার থেকে মাঠে গড়াচ্ছে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ২০১৯’র কোয়ালিফায়ার। গত আসরে বাংলাদেশ ‘সি’ গ্রুপে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও এবার করছে ‘এফ’ গ্রুপে। ‘এফ’ গ্রুপের অন্য দলগুলো হলো- ভিয়েতনাম, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন এবং লেবানন।

    সবগুলো ম্যাচ হবে ঢাকার কমলাপুর স্টেডিয়ামে। উদ্বোধনী দিনের প্রথম খেলায় সকাল ১১.৩০টায় মুখোমুখি হবে সংযু্ক্ত আরব আমিরাত ও ভিয়েতনাম এবং বিকেল ৩.৩০টায় দ্বিতীয় খেলায় লড়বে লেবানন-বাহরাইন। আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেল ৩.৩০টায় স্বাগতিক বাংলাদেশ তাদের প্রথম খেলায় মুখোমুখি হবে বাহরাইনের।

    এ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর কোচ ও অধিনায়করা বাফুফে ভবনের কনফারেন্স রুমে আজ দুপুরে তাদের লক্ষ্যের কথা জানান।

    বাংলাদেশ দলের হেড কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বলেন, আমি আপনাদের পুরোপুরিভাবে আশ্বস্ত করতে চাই এই আসরে আমরা ভালো করব। আমরা থাইল্যান্ডের পথে এক পা দিয়ে রেখেছি। তিনি বলেন, গত ডিসেম্বর থেকে আমার দল প্রস্তুতি নিচ্ছে। গত ৯ মাসে আমরা তিনটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছি। এর মধ্যে দুটিতে চ্যাম্পিয়ন এবং একটিতে রানার্স আপ হয়েছি। সুতরাং আমাদের প্রস্তুতি বেশ ভালো।

    তিনি আরও বলেন, গত তিনটি টুর্নামেন্টে আমাদের যে ভুলগুলো হয়েছে সেগুলো শুধরানোর চেষ্টা করেছি আমরা। গতকালও আমার মেয়েরা শেষদিনের মতো ভালোভাবে অনুশীলন করেছে। আমার দলের সবাই সুস্থ আছে।

    বয়সের কারণে গত আসরের ১১ জন খেলোয়াড় বাদ পড়েছে। গত আসরের ১২ জন খেলোয়াড় এবারের আসরে খেলছে। দলে নতুন যারা এসেছে তারা অনেক ভালো। নতুনদের মধ্যে শামসুন্নাহার জুনিয়র, ঋতুপর্না চাকমা এবং সাজেদা অনেক ভালো খেলে বলে জানান তিনি।

    তিনি আরও বলেন, অংশগ্রহণকারী দলগুলোর মধ্যে আমার দল সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী। তবে লেনানন, ভিয়েতনাম ও বাহরাইনও শক্তিশালী দল। অপর দল আরব আমিরাতকে ২০১৪ সালে আমরা ৬-০ গোলে এবং ২০১৬ সালে ৪-০ গোলে পরাজিত করেছি।

    অংশগ্রহণকারী দলগুলোর শক্তি সম্পর্কে আপনার কোনো ধারণা আছে কীনা? এক সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন বলেন, ভিয়েতনামের ভিডিও ফুটেজ দেখার চেষ্টা করেছি। তারা শক্তিশালী। বাহরাইন ও লেবাননও শক্তিশালী দল।

    তিনি আরও বলেন, আমাদের মেয়েরা গত ৯ মাস ধরে খেলার মধ্যেই আছে। দলে থাকা ২৩ জনেরই আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে।

    অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোচিং স্টাফদের মধ্যে সমন্বয়ের কোনো ঘাটতি নেই। আর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মারিয়া মান্দা বয়সের কারণে আগামী বছর খেলতে না পারলেও মাঝমাঠ নিয়ে চিন্তার কোনো কারণ নেই। তার জায়গায় খেলার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে মুন্নী, সোহাগীরা। তবে মারিয়া মারিয়াই।

    সংযুক্ত আরব আমিরাতের কোচ হরিয়া আল তাহেরি বলেন, গত মার্চ থেকে আমরা অনুশীলন করছি। আমরা নিজেদের মাটিতে লেবানন, বাহরাইন, জর্দান, ফিলিস্তিন ও সিরিয়াকে নিয়ে ৬ দলের অংশগ্রহণে ওয়েস্ট এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজন করেছি। সেই আসরে আমরা ৫ম স্থান দখল করি।

    এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বাংলাদেশ দল সম্পর্কে আমার জানা নেই। কিছুদিন আগে অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ ভারতের কাছে ১-০ গোলে হেরে রানার্স আপ হয়েছে। সঙ্গত কারণেই বাংলাদেশ ভালো দল। অংশগ্রহণকারী সবদলই শক্তিশালী। বিশেষ করে লেবানন ও বাহরাইন বেশ শক্তিশালী।

    এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ৬ বছর ধরে কোচিং পেশায় আছেন তিনি। তার সেরা কোচ হোসে মরিনহো।

    বাহরাইন দলের কোচ খালেদ হাসান বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ওয়েস্ট এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিয়েছি আমরা। সেখানে আমরা চতুর্থ স্থান দখল করি। তিনি বলেন, যে কোনো দলেরই লক্ষ্য থাকে ফাইনাল রাউন্ডে খেলার। আমরা দুই মাসের প্রস্তুতি নিয়ে এখানে এসেছি। আমাদের কোয়ালিফাই করার হাফ চান্স আছে। বাকি দলগুলোর যে কেউ কোয়ালিফাই করতে পারে। বিশেষ করে স্বাগতিক বাংলাদেশ বেশ শক্তিশালী দল।

    লেবাননের কোচ হেগপ ডেমিরজিয়ান বলেন, এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬তে প্রথমবারের মতো অংশ নিচ্ছি আমরা। ২ মাস আগ থেকে আমরা প্রস্তুতি শুরু করি। প্রতিদিন ২/৩ বেলা অনুশীলনে করেছে আমার মেয়েরা। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, স্থানীয় অনূর্ধ্ব-১৯ ও সিনিয়র দলগুলোর সাথে ৩টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছি আমরা। এর মধ্যে একটিতে ১-১ ড্র করেছি। বাকি দুটিতে হেরেছি আমরা। এই টুর্নামেন্টে ফুটবলের উন্নয়নই আমাদের লক্ষ্য। অনূর্ধ্ব-১৭, অনূর্ধ্ব-১৯ ও সিনিয়র লিগের খেলা চালু আছে আমাদের দেশে।

    এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, গত ৮-৯ বছর আগে  আমাদের দেশে নারী ফুটবল খেলা চালু হয়। মার্চে সংযু্ক্ত আরব আমিরাতে আয়োজিত ওয়েস্ট এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলেছি আমরা। জর্ডানের কাছে হেরে রানার্স আপ হই।

    লেবাননের অধিনায়ক রিদা ওহাব বলেন, এটা আমাদের প্রথম অংশগ্রহণ। আমার স্বপ্ন জাতীয় দলে খেলা। ওয়েস্ট এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে আমি তিনটি ম্যাচ খেলেছি। আগামীকাল আমি চতুর্থ ম্যাচ খেলতে নামব।

    ভিয়েতনামের কোচ হাই লান বলেন, মাত্র ২ সপ্তাহের প্রস্তুতি নিয়ে আমরা এ আসরে খেলতে এসেছি। তিনি বলেন, লেবানন ও বাংলাদেশ কোয়ালিফাই করার যোগ্যতা রাখে। তবে আমাদেরও সম্ভাবনা আছে।

    ভিয়েতনাম অধিনায়ক ভুথি হোয়া বলেন, ২ সপ্তাহের প্রস্তুতি নিয়ে এখানে এসেছি। আমরা ভালো খেলে কোয়ালিফাই করতে চাই।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...