আফ্রিদির অলরাউন্ড নৈপুণ্যে সহজ জয় ঢাকার – BD Sports 24
  • আফ্রিদির অলরাউন্ড নৈপুণ্যে সহজ জয় ঢাকার

    November 11th, 2017

    আফ্রিদির অলরাউন্ড নৈপুণ্যে সহজ জয় ঢাকার

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ১১ নভেম্বর: শহীদ আফ্রিদির অলরাউন্ড নৈপুণ্যে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা সিলেট সিক্সার্স-এর বিপক্ষে ৮ উইকেটের সহজ জয় পেয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটস। সিলেট পর্বে সিলেট সিক্সার্স-এর কাছে ৯ উইকেটে হেরেছিল ঢাকা। আজ ঢাকায় সিলেটকে ৮ উইকেটে হারিয়ে প্রতিশোধ নিল ঢাকা।

    শহীদ আফ্রিদি আজ এবারের বিপিএলে প্রথমবারের মতো মাঠে নেমেই দলকে ৮ উইকেটের সহজ জয় এনে দেন। প্রথমে বল হাতে ৪ ওভারে মাত্র ১২ রান খরচায় নেন ৪ উইকেট। পরে দলের উদ্বোধনী করতে এতে ১৭ বলে ১ চার ও ৫ ছক্কায় ঝড়োগতিতে ৩৭ রান করে আউট হন।

    অপর ওপেনার এভিন ছিলেন অত্যন্ত মারমুখী। মাত্র ১৮ বলে ৪৪ রানে অপরাজিত থাকেন। এভিন লুইস। তার ইনিংসে একটি বাউন্ডারি ও পাঁচটি ছক্কার মার রয়েছে। অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ২ চার ১ ছক্কায় ১৮ রানে অপরাজিত থাকলে মাত্র ৭.৫ ওভারে ১০৬ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে ৮ উইকেটের সহজ জয় পায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। এর ফলে ৩ খেলায় ২ জয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে তারা।

    এর আগে ঢাকা ডায়নামাইটসের দুই স্পিনার শহীদ আফ্রিদি ও সুনীল নারাইনের ঘূর্ণিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১০১ রান করেছে সিলেট সিক্সার্স। যা কীনা এবারের বিপিএলের সর্বনিম্ন স্কোর। আফ্রিদি ১২ রান খরচায় একাই শিকার করেন ৪ উইকেট। আর নারাইন মাত্র ১০ রান খরচায় ৩ উইকেট নিজের ঝুলিতে নেন। বাকি দুই উইকেট নেন ঢাকার পেসার আবু হায়দার।

    টস হেরে ব্যাট করতে নামা সিলেটের ইনিংসে প্রথম আঘাতটা কিন্তু হানেন ঢাকার পেস ব্যাটারি আবু হায়দার রনি। ওপেনার উপল থারাঙ্গাকে সাজঘরে ফেরত পাঠান আবু হায়দার। থারাঙ্গা মাত্র ১ রান করেন। দলীয় রান তখন ৪। ১৩ রানে ১ রান করার সাব্বিরকে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান সুনীল নারাইন। আবু হায়দার দ্বিতীয় আঘাত হানেন গুনারত্নেকে আউটের মধ্য দিয়ে। গুনারত্নে করেন ১৫ রান।

    এরপর ঢাকার দুই স্পিনার সুনীল নারাইন ও শহীদ আফ্রিদির ঘূর্ণিতে ৫৩ রানে ৯ উইকেট খুইয়ে বসে ৪ ম্যাচের তিনটিতে জয় পাওয়া সিলেট সিক্সার্স। একসময় মনে হয়েছিল ৬০ রানের বেশি করতে পারবে না সিলেট। কিন্তু দশম উইকেটে ৭ ওভার মোকাবেলা করে সিলেটের দুই বোলার আবুল হাসান ও তাইজুল ইসলাম ৪৮ রানের অবিচ্ছিন্ন পার্টনারশিপ গড়েন। ফলে দলীয় রান ১০০ পার করতে সক্ষম হন এই দুই টেল এন্ডার।

    আবুল হাসান ২৬ বলে ৩ চার ১ ছক্কায় ৩০ রানে অপরাজিত থাকেন। অপর ব্যাটসম্যান তাইজুল ইসলাম ২০ বলে ১টি বাউন্ডারির সাহায্যে ১৬ রানে অপরাজিত থাকলে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১০১ রান করে সিলেট। জিততে হলে ঢাকাকে করতে হবে ১০২ রান।

    অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের সুবাদে ম্যাচসেরা হন শহিদ আফ্রিদি।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

    No posts here...

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা