ইংল্যান্ড-পাকিস্তান সিরিজ দিয়ে মাঠে ফিরছে টি-২০ ক্রিকেট – BD Sports 24
  • ইংল্যান্ড-পাকিস্তান সিরিজ দিয়ে মাঠে ফিরছে টি-২০ ক্রিকেট

    August 27th, 2020

    স্পোর্টস ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ম্যানচেস্টার, ২৭ আগস্ট: মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে স্থবির হয়ে পড়ে ক্রিকেট তথা বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন। ১১৬ দিন পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টেস্ট ক্রিকেট মাঠে ফিরিয়েছিল ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। ১৩৮ দিন পর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটও ফিরিয়েছে ইসিবি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডের পর এবার টি-২০ ক্রিকেটকেও মাঠে ফেরাচ্ছে ইসিবি।

     

    আগামীকাল শুক্রবার থেকে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ শুরু করছে ইংল্যান্ড। ১৬৭ দিন পর ২২ গজে দেখা যাবে টি-২০ ক্রিকেট। ম্যানচেস্টারে ইংল্যান্ড-পাকিস্তানের মধ্যকার প্রথম টি-২০ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায়।

     

    করোনার প্রাদুর্ভাব না গেলেও, গেল ৮ জুলাই দীর্ঘ ১১৬ দিন পর টেস্ট ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরে ক্রিকেট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলে ইংল্যান্ড। ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে ইংলিশরা।

     

    ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে টেস্ট শেষে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ শুরু করে ইসিবি। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতে স্বাগতিকরা। আইরিশদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের পরের দিনই পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলতে নামে ইংল্যান্ড। তিন ম্যাচের সিরিজ ১-০ ব্যবধানে জিতে নেয় ইংলিশরা।

     

    করোনার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মানতে জৈব-সুরক্ষা পরিবেশ ও রুদ্ধদ্বার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় দু’টি টেস্ট ও একটি ওয়ানডে সিরিজ। বিশ্ব ক্রিকেট দেখলো ভিন্ন পরিবেশে টেস্ট-ওয়ানডে ম্যাচ। এবার টি-২০ ম্যাচ দেখার দোরগোড়ায় সকলে।

     

    ইংল্যান্ড-পাকিস্তান সিরিজেও স্বাস্থ্যবিধির সকল প্রোটকল মানতে হবে দু’দলের খেলোয়াড় ও অন্যান্যদের। আগের দু’টি ফরম্যাটে সাথে স্বাস্থ্যবিধির সকল প্রোটকলের সাথে নিজেদের মানিয়ে নিয়েছে খেলোয়াড়রা। তাই টি-২০ ফরম্যাটে কোনো সমস্যা হবে না তাদের।

     

    তবে ইংল্যান্ড-পাকিস্তান, দু’দলেরই লক্ষ্য টি-২০ সিরিজ জয়। টেস্ট-ওয়ানডের পর টি-২০ ক্রিকেট মাঠে ফেরায় খুশী ইংলিশ অধিনায়ক ইয়োইন মরগান, ‘আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলেছি আমরা। এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-২০ সিরিজ খেলবো। টেস্ট ও ওয়ানডের পর এবার টি-২০ ক্রিকেটও ফিরছে মাঠে। এটি খুবই আনন্দের। আমরা মাঠে নামতে মুখিয়ে আছি। তবে এই সিরিজে আমাদের কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে। কারণ এই ফরম্যাটে পাকিস্তান শক্তিশালী দল। তাদের হারানো সহজ হবে না। কিন্তু নিজেদের সেরাটা খেলতে পারলে, আমার সাফল্যের দেখা পাবো। আমাদের লক্ষ্য সিরিজ জয়।’

     

    টি-২০ ফরম্যাটে গেল বছরটা মোটেও ভালো কাটেনি পাকিস্তানের। ১০ ম্যাচের অংশ নিয়ে মাত্র ১টিতে জয় পায় তারা। তবে এ বছরের শুরুতে দেশের মাটিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতেছে পাকিস্তান।

     

    ঐ সিরিজের পর এবার টি-২০ খেলতে নামবে পাকিস্তান। টেস্ট সিরিজে খেলা অধিনায়ক বাবর আজম-শাদাব খান ও শাহিন শাহ আফ্রিদি থাকছেন ছোট ফরম্যাটে। টেস্টে ফর্মের কারণে সুযোগ পেতে পারেন উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ রিজওয়ান। সম্ভাবনা রয়েছে সাবেক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদেরও।
    দুই অভিজ্ঞ শোয়েব মালিক-মোহাম্মদ হাফিজের সাথে টি-২০তে দেখা যাবে ফখর জামান-হায়দার আলি-ইমাদ ওয়াসিম-মোহাম্মদ আমির ও ওয়াহাব রিয়াজদের। এ সিরিজ দিয়ে টি-২০তে অভিষেক হতে পারে তরুণ পেসার নাসিম শাহ’র।

     

    অভিজ্ঞদের সাথে তারুণ্যের মিশ্রণে টি-২০ সিরিজ জয়ের স্বপ্ন বাবরের। তিনি বলেন, ‘টেস্ট সিরিজ হারলেও, দল হিসেবে আমরা ভালো খেলেছি। প্রথম টেস্টে ভাগ্য আমাদের সাথে ছিলো না, নয়তো সিরিজের চিত্র অন্যরকম হতে পারতো। দলের অনেকেই টেস্ট সিরিজে খেলেনি। তাই টি-২০ দলটি পুরো চাঙ্গা আছে। এই দল নিয়ে সিরিজ জয়ের ব্যাপারে আমি আশাবাদী।’

     

    ইংল্যান্ড দলে ফিরেছেন ক্রিস জর্ডান ও ডেভিড মালান। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে একটি হাফ-সেঞ্চুরি করা টম ব্যাটন, ব্যাটিং অর্ডারে উপরের দিকে প্রমোশন পেতে পারেন। মিডল-অর্ডারে অধিনায়ক মরগান-স্যাম বিলিংসের সাথে দেখা যেতে পারে জো ডেনলি বা মালানের মধ্যে একজনকে।

     

    স্পিন অলরাউন্ডার হিসেবে থাকছেন ডেভিড উইলি ও মঈন আলি। বোলিং বিভাগে স্পিনে আদিল রশিদের সাথে পেস আক্রমণে দেখা যাবে জর্ডান-সাকিব মাহমুদ ও টম কারানকে।

     

    গেল ফেব্রুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সর্বশেষ টি-২০ সিরিজ খেলে ইংল্যান্ড। দেশের মাটিতে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতে ইংলিশরা। এই ফরম্যাটে পাকিস্তানের বিপক্ষেও পারফরমেন্স ভালো ইংল্যান্ডের। আগের ১৫ দেখায় ১০ ম্যাচে জয় পায় তারা। ৪ ম্যাচ জিতে পাকিস্তান।

     

    ইংল্যান্ড: ইয়োইন মরগান (অধিনায়ক), মঈন আলী, জনি বেয়ারস্টো, জেসন রয়, টম ব্যান্টন, স্যাম বিলিংস, টম কারান, জো ডেনলি, লুইস গ্রেগরি, ক্রিস জর্ডান, সাকিব মাহমুদ, ডেভিড মালান, আদিল রশিদ ও ডেভিড উইলি।

    পাকিস্তান: বাবর আজম (অধিনায়ক), ফখর জামান, হায়দার আলি, হারিস রউফ, ইফতিখার আহমেদ, মোহাম্মদ রিজওয়ান, মোহাম্মদ আমির, ইমাদ ওয়াসিম, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ হাসনাইন, নাসিম শাহ, সরফরাজ আহমেদ, শাদাব খান, শাহিন শাহ আফ্রিদি, শোয়েব মালিক ও ওয়াহাব রিয়াজ। বাসস।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...