ইউরো-২০১৬ ফাইনালের পরাজয়ের স্মৃতি এখনো ভুলতে পারেনি ফ্রান্স: দেশ্যম – BD Sports 24
  • ইউরো-২০১৬ ফাইনালের পরাজয়ের স্মৃতি এখনো ভুলতে পারেনি ফ্রান্স: দেশ্যম

    July 11th, 2018

    ক্রীড়া ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    সেন্ট পিটার্সবার্গ, ১১: ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ের দেশ্যম স্বীকার করেছেন ইউরো ২০১৬’র ফাইনালের হারের দু:সহ স্মৃতি এখনো ভুলতে পারেনি ফ্রান্স। কিন্তু বিশ্বকাপের শিরোপা ঘরে তুলতে পারলে এই পরিস্থিতি পাল্টে যাবে বলে বিশ্বাস দেশ্যমের। মঙ্গলবার বেলজিয়ামকে ১-০ গোলে পরাজিত করে লেস ব্লুজরা বিশ্বকাপের ফাইনাল নিশ্চিত করার পরে দেশ্যম এই কথাগুলো বলেন।

    ঘরের মাঠে মাত্র দুই বছর আগে ফ্রান্স ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলেছিল। কিন্তু পর্তুগালের বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচটিতে অতিরিক্ত সময়ের গোলে হারের দু:সহ স্মৃতি নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। দেশ্যম স্বীকার করেছেন ঐ ফলাফল এখনো খেলোয়াড়দের মনে গেঁথে আছে।

    মঙ্গলবার সেমিফাইনালে জয়ের পরে ফ্রেঞ্চ কোচ বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা এখন আরেকটি ফাইনালে। দুই বছর আগে কি ঘটেছিল এখনো আমার মনে আছে। এবার আমরা ফাইনালে জয়ের জন্যই যাচ্ছি। ইউরোর ফাইনালটি এখনো আমরা কেউ ভুলতে পারিনি।’

    সেন্ট পিটার্সবার্গে জয়সূচক গোলটি করেছেন ফ্রান্সের ডিফেন্ডার স্যামুয়েল উমতিতি। ১৯৯৮ সালে বিশ্বকাপ জয়ী দলের অধিনায়ক দেশ্যম তার তরুণ দলটি নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেন, ‘এটা সত্যিই ব্যতিক্রম। আমি সত্যিকার অর্থেই খেলোয়াড়দের নিয়ে দারুণ খুশী। তারা তরুণ, কিন্তু তাদের মধ্যে জয়ের আকাঙ্খা আছে। প্রতিপক্ষ হিসেবে বেলজিয়াম বেশ কঠিন। এই ম্যাচে জয়ী হওয়ার সব কৃতিত্ব খেলোয়াড়দের।’

    ২০১৬ সালের স্মৃতি উমতিতির মনেও হতাশার জন্ম দেয়। ম্যাচ শেষে তিনিও কোচের মতই বলেছেন, ‘আমরা ইউরোর ফাইনাল জিততে পারিনি। সে কারণেই বিশ্বকাপের জয়টা জরুরী। আশা করছি এবার সব পাল্টে যাবে। বিশ্বকাপ জয় করেই আমরা ঘরে ফিরবো।’

    এখনো পর্যন্ত রাশিয়ায় গোল করতে না পারা তারকা স্ট্রাইকার অলিভার জিরুদ জানিয়েছেন ছোটবেলা থেকেই তার স্বপ্ন ছিল বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলার। ১৯৯৮ সালে বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক জিনেদিন জিদানের মত তিনি খেলার আশা করেন। জিরুদ বলেন, ‘এটা আমার ছোটবেলার স্বপ্ন। পরিবার, বন্ধু ও ফ্রান্সের মানুষদের সাথে বিশ্বকাপের স্মৃতি ভাগাভাগি করাটা সত্যিই গর্বের বিষয়। আমাদের এই পথ মোটেই সহজ ছিল না। কিন্তু আমরা পেরেছি। এখন আর মাত্র ৯০ মিনিটের একটি ম্যাচ বাকি। এই স্মৃতি সত্যিই ভোলার নয়। জিদানের কথা আমার মনে আছে, আশা করছি আমাদের সকলের সামনে যেন সেই একই সুযোগ আসে।

    ফ্রান্সের অধিনায়ক ও গোলরক্ষক হুগো লোরিস বলেছেন, ফুটবল সত্যিই এক অসাধারণ খেলা। কারণ এর মাধ্যমে আমরা আমাদের সমর্থক ও ফ্রেঞ্চ মানুষদের আবেগী করে তুলতে পারি। আশা করছি রোববার শেষ উৎসবটাও আমরা উদযাপন করবো। কোচ যা বলেছে আমরা সেটাই করার চেষ্টা করেছি। ম্যাচের প্রতিটি ক্ষেত্রে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছি। শেষ পর্যন্ত সেট পিস থেকে গোল পেয়েছি। দুই বছর আগে স্মৃতি আর পুনরাবৃত্তি করতে চাই না। বাসস।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা