এবার কি তবে শিরোপা জয়? – BD Sports 24
  • এবার কি তবে শিরোপা জয়?

    January 15th, 2018

    মোয়াজ্জেম হোসেন রাসেল, বিশেষ প্রতিনিধি

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ১৫ জানুয়ারি: চন্ডিকা হাথুরুসিংহে, হিথ স্ট্রিক, খালেদ মাহমুদ সুজন। তিনজন কিছুদিন আগেও ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অবিচ্ছেদ্য অংশ। কিন্তু এখন শেষের জনই শুধু আছেন, বাকি দু’জন দাঁড়িয়ে গেছেন প্রতিপক্ষ হিসেবে। সেটা ত্রিদেশীয় সিরিজের কল্যাণে তিনজন তিন দলের কাণ্ডারী।

    হাথুরুসিংহে বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের পদ ছেড়ে শ্রীলংকায়, বোলিং কোচের পদ ছেড়ে হিথ স্ট্রিক জিম্বাবুয়ে দলের প্রধান কোচ আর একই সময়ে ম্যানেজার এখন জাতীয় দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর।

    আজ থেকেই শুরু হয়েছে বাংলাদেশ, শ্রীলংকা আর জিম্বাবুয়েকে নিয়ে বছরের প্রথম ত্রিদেশীয় সিরিজ। এই উপলক্ষ্যে কোচদের একটা পুনর্মিলনীও হয়ে গেছে। এই আসরে নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে মাঠে নামছে দলগুলো। তবে বাংলাদেশ শিরোপা ছাড়া অন্যকিছু ভাবছে না। প্রতিপক্ষ দলগুলোকে সমীহ করেই টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন চোঁখ রেখেছেন শিরোপায়। হোম কন্ডিশন, প্রতিপক্ষের শক্তি, নিজেদের পারফরম্যান্স, অভিজ্ঞতা সবকিছু মিলিয়ে অধরা ট্রফি জয়ের এটাই সেরা সুযোগ বাংলাদেশের সামনে। কখনোই ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের শিরোপা না জেতার আক্ষেপ ঘোঁচাতে চোখ রাখছে টিম বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আজই শুরু হয়েছে শিরোপা জয়ের মিশন। এই ম্যাচটি মিরপুরের ’হোম অব ক্রিকেট’ ৯৯তম ওয়ানডে। ১৭ জানুয়ারি শ্রীলংকা-জিম্বাবুয়ের ম্যাচ দিয়ে শততম ম্যাচ আয়োজন করতে যাচ্ছে মিরপুর। সেঞ্চুরি হয়ে যাওয়ার পর আরো বড় রেকর্ডের দিকেই নজর থাকবে।

    স্বাগতিক হিসেবে এই সিরিজে বাংলাদেশকে ফেবারিট মানতেই হবে। সাম্প্রতিক সময়ের পারফরম্যান্সই এই কথাটির সাথে একমত পোষণ করতে যথেষ্ট। যদিও সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে সময়টা মোটেও ভালো কাটেনি লাল-সবুজ পতাকাধারীদের। যদিও এশিয়ার কোন দলই প্রোটিয়া কন্ডিশনে নিজেদের আসল খেলাটা খেলতে পারেন না। বাংলাদেশের ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম কিছু ঘটেনি। এবার সেই ব্যর্থতাকে মুছে ফেলার সময় এসেছে। আসরে  তিন দল দু’বার করে একে অপরের মুখোমুখি হবে। ফাইনাল ২৭ জানুয়ারি। শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়েকে নিয়ে শেষ ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল খেলেছিল বাংলাদেশ। ঢাকায় অনুষ্ঠিত ২০০৯ সালের শিরোপা নির্ধারণীতে লঙ্কানদের কাছে ২ উইকেটে হারের হতাশা এখনো কাটা হয়ে বিধে রয়েছে দর্শক-সমর্থকদের মনে।

    এবার প্রথমবারের মতো শিরোপা দেশে রেখে দিতে আত্মবিশ্বাসী মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। শক্তির বিচারে স্বাগতিক হওয়ার সুবাদে এগিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। মূল লড়াইটা হবে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে। যে দলের কোচ আবার টাইগারদের সবশেষ গুরু হাথুরুসিংহে। জিম্বাবুয়েও প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারে, কারণ সর্বশেষ শ্রীলংকা হেরেছিল তাদের কাছে। গত বছরের জুন-জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কাকে তাদের মাটিতেই ৩-২ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজে হারিয়ে দেয় জিম্বাবুয়ে।

    বাংলাদেশের ভাণ্ডারে এখনো ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জোটেনি। নিজেদের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত ১১টি ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। ফাইনাল খেলেছেও দুবার। এবার দলের লক্ষ্য সম্পর্কে সুজন জানান, ‘বছরের শুরুতেই ত্রিদেশীয় সিরিজে মাঠে নামছি আমরা। ভালো করার জন্যই কদিন অনুশীলন করেছি। আমরা মনে করি, চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার জন্য প্রস্তুত। এই টুর্নামেন্টে আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে চাই। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য প্রস্তুতিও নেওয়া হয়েছে জোরেশোরে। আমরা নির্দিষ্ট কিছু কাজের প্রতি নজর দিয়েছিলাম। আমরা বেশ ভালো প্রস্তুত। যে সব বিষয় নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলাম আমরা সেগুলো নিয়ে কাজ করতে পেরেছি। ছেলেরাও সব কিছুতে সমর্থন করেছে। আমরা যা করতে চেয়েছি, সেটা পেরেছি’।

    এদিকে বাংলাদেশ দলে ব্যাটিং অর্ডারে এসেছে কিছুটা পরিবর্তন। ওপেনিংয়ে তামিম ইকবালের সাথে এনামুল হক বিজয়ের পর তিনে নামবেন সাকিব আল হাসান। এরপর মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান রুম্মান, মেহেদি হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মর্তুজা। এরপর আসতে পারেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও মোস্তাফিজুর রহমান। তবে নিজেদের পরিচিত কন্ডিশনে হলেও বড় দুশ্চিন্তার নাম হয়ে আছে কুয়াশা।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা