এশিয়া কাপে শুভ সূচনা চায় টাইগাররা – BD Sports 24
  • এশিয়া কাপে শুভ সূচনা চায় টাইগাররা

    September 14th, 2018

    ক্রীড়া ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    দুবাই, ১৪ সেপ্টেম্বর: ছয় দলকে নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে এশিয়া কাপ ক্রিকেটের ১৪তম আসর। টুর্নামেন্টের প্রথমদিনই মাঠে নামছে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা। জয় দিয়ে আসর শুরু করতে মরিয়া বাংলাদেশ। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটি এবারের আসরে বাংলাদেশের সাফল্য নির্ভর করছে বলে দেশ ছাড়ার আগে বলেছিলেন দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫.৩০টায়।

    ১৯৮৬ সালে প্রথম এশিয়া কাপে অংশ নেয় বাংলাদেশ। ২০১০ সাল পর্যন্ত ৯ বার এশিয়া কাপ খেলেছে টাইগাররা। কাঙ্ক্ষিত সাফল্যের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টাও করেছে। কিন্তু কোনোবারই ফাইনালে উঠতে পারেনি বাংলাদেশ। অবশেষে ২০১২ সালে বাংলাদেশের মনের আশা পূরণ হয়। ফাইনালে খেলে তারা। কিন্তু রানার্স-আপ হয়েই শান্ত থাকতে হয় টাইগারদের। পরের আসরে আবারো ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করে বাংলাদেশ। তবে ব্যর্থতার ষোলকলা পরের আসরেই মুছে ফেলে টাইগাররা। মাশরাফির নেতৃত্বে আবারো এশিয়া কাপের ফাইনালে ওঠে বাংলাদেশ। কিন্তু এবারও ভাগ্য সহায় হয়নি বাংলাদেশের। এবার ভারতের কাছে হার মেনে দ্বিতীয়বারের মত রানার্স-আপ হয় টাইগাররা।

    তবে এবার পুরনো দুঃখ ভুলে যেতে চায় বাংলাদেশ। অতীতের ভালো পারফরমেন্স বাংলাদেশকে অনুপ্রেরণা দিবে বলে মনে করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। এশিয়া কাপে খেলতে নামার আগে তিনি বলেন, ‘গেল তিন আসরের দু’টিতে আমরা ফাইনাল খেলেছি। তাই এশিয়া কাপে আমাদের বেশকিছু ভালো স্মৃতি হয়েছে। এছাড়া এশিয়ার মধ্যে আমরা অন্যতম শক্তিশালী দল। র‌্যাংকিং হিসেবে আমরা তৃতীয়স্থানে রয়েছি। তাই এসব সুখস্মৃতি ও অর্জন আসন্ন ১৪তম আসরে ভালো খেলতে আমাদের অনুপ্রেরণা যোগাবে।’

    দলের অন্যতম ভরসা পঞ্চপান্ডব। মাশরাফি, সাকিব, মুশফিকুর, তামিম ও মাহমুদুল্লাহ। গেল কয়েক বছর যাবত এই পাঁচজন খেলোয়াড়ের উপরই নির্ভর করছে বাংলাদেশের সাফল্য। এই পাঁচজন মিলে খেলেছেন ৯০১ ওয়ানডে। এমন অভিজ্ঞতা এবারের আসরে এগিয়ে রাখবে বাংলাদেশকে, এটি বলার অপেক্ষা রাখে না। কারণ ওপেনার হিসেবে দলকে ভালো শুরু এনে দেয়ার কাজটা দায়িত্ব নিয়েই করছেন তামিম। সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ৩ ইনিংসে ২টি সেঞ্চুরি ও ১টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ২৮৭ রান করেছেন তামিম।

    মিডল-অর্ডারে প্রয়োজন অনুযায়ী বড় ইনিংস খেলছেন মুশফিকুর, সাকিব ও মাহমুদুল্লাহ। দলের পেস অ্যাটাকে অন্যতম ভরসা অধিনায়ক মাশরাফি। ক্যারিবীয় সফরে সেটি আবারো প্রমান দিয়েছেন ম্যাশ ম্যাচে সিরিজের সর্বোচ্চ ৭ উইকেট নেন মাশরাফি। তার অভিজ্ঞতার সাথে তরুনদের পারফরমেন্স জ্বলে উঠলে এশিয়া কাপে শিরোপা খড়া ঘুচবে বাংলাদেশের।

    তবে আরব আমিরাতে কন্ডিশনের সাথে দ্রুতই মানিয়ে নেয়াও চ্যালেঞ্জিং সব দলের জন্য। যে কারণে সবার আগে আরব আমিরাতে পৌঁছায় বাংলাদেশ। তবে কন্ডিশন নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত নন বাংলাদেশের ওপেনার তামিম, ‘এই উইকেটে খুব বেশি সমস্যা হবার কথা নয়। তবে আমাদের সর্তক থাকতে হবে। এই কন্ডিশনে খেলার অভিজ্ঞতা আমার রয়েছে। আমার মনে হয়, দলের সবাই এই কন্ডিশনে খেলার জন্য প্রস্তুত।’

    শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ। এই ম্যাচ নিয়ে কোনো চাপ নেই বলে জানালেন তামিম। এছাড়া এবারের আসরে কোনো দলই ফেভারিট নয় বলে মনে করেন তামিম, ‘শ্রীলংকা খুবই ভালো দল। সম্প্রতি তাদের সাথে অনেকগুলো ম্যাচ খেলেছি। তাই শ্রীলংকার সর্ম্পকে আমাদের ভালো ধারণা রয়েছে। তবে আমাদের জন্য প্রথম ম্যাচটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। নিজেদের দিনে যারা ভালো করবে তারাই জিতবে। ভারত-পাকিস্তান-আফগানিস্তানও ভালো মানের দল নিয়ে এখানে এসেছে। এবারের আসরটি বেশ জমজমাট হবে।’

    পক্ষান্তরে বাংলাদেশের সাথে সাম্প্রতিক সময়ে বেশি ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা এশিয়া কাপের প্রথম আসরে কাজে দিবে বলে মনে করেন শ্রীলংকার অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ। তিনি বলেন, ‘যেকোনো আসরে প্রথম ম্যাচ সবসময়ই অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাই বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচটি অনেক বেশি কঠিন হবে। তবে আমরা যেকোনো চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত। সম্প্রতি বাংলাদেশের সাথে অনেকগুলো ম্যাচ খেলেছি। ঐসব অভিজ্ঞতা আমাদের কাজে দিবে।’

    ওয়ানডেতে এখন পর্যন্ত ৪৪ বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা। জয়ের পাল্লায় এগিয়ে লংকানরা। ৩৬টি ম্যাচ জিতেছে তারা। বাংলাদেশের জয় ৬টি।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...