কন্ডিশনিং ক্যাম্পের আড়ালে সাফের প্রস্তুতি – BD Sports 24
  • কন্ডিশনিং ক্যাম্পের আড়ালে সাফের প্রস্তুতি

    February 28th, 2018

    মোয়াজ্জেম হোসেন রাসেল, বিশেষ প্রতিনিধি

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ২৮ ফেব্রুয়ারি: দীর্ঘ ১৬ মাস পর আবারো শুরু হয়েছে জাতীয় ফুটবল দলের কার্যক্রম। তবে এবার দলে অনেক নতুনের মিশেল ঘটেছে। যোগ হতে যাচ্ছে অনেককিছুই। ২৮ ফেব্রুয়ারি বুধবার প্রথমবারের মতো দুই সপ্তাহের কন্ডিশনিং ক্যাম্প করতে কাতার গেছে জাতীয় দল।

    ২০২২ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশটিতে এই ক্যাম্প জাতীয় দলের জন্য নতুন অভিজ্ঞতাই বলা চলে। ফিটনেস কোচের পাশাপাশি গোলরক্ষক কোচও যোগ হয়েছেন দলের বহরে। নতুনদের নিয়েই এবার শুরু হয়েছে নতুন বাংলাদেশের পথচলা। মূলত আগামী সেপ্টেম্বরে সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত হচ্ছে সবকিছু। কারণ গত দুটি সাফের আসর থেকে বিদায় নিতে হয়েছে একেবারে শুরুতে। গ্রুপপর্বের গণ্ডি পেরুতে না পারা দলটি এবার ঘরের মাঠে সর্বোচ্চ সাফল্য পেতে চায়।

    ২০০৩ সালে সর্বশেষ ঢাকায় শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। এরপর ২০১০ সালে এসএ গেমসের শিরোপা জিতেছিল লালসবুজ প্রতিনিধিরা। এরপরের গল্পটা শুধুই হতাশার। কোনোভাবেই যে তা কাটছে না। আন্তর্জাতিক কোনো আসরের শিরোপা জেতা তো দুরের কথা আশা জাগানিয়া কোনো পারফরম্যান্সও দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন খেলোয়াড়রা। যদিও বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ২০১৫ সালের আসরটিতে ফাইনালে খেললেও শিরোপা জেতা সম্ভব হয়নি। তবে বয়সভিত্তিক দলে এতটা হতাশা নেই। শিরোপা যদিও খুব কম সময়ই জিততে পেরেছিল বাংলাদেশ, তবুও পারফরম্যান্স ছিল আশা জাগানিয়া। ২০১৫ সালে সাফ অনুর্ধ্ব-১৫ আসরের শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ।

    গত বছরের শেষেরদিকে পরের আসরে শিরোপা জিততে না পারলে আশা জাগিয়েছে। এবার একটু আগেভাগেই সাফের প্রস্তুতি শুরু করেছে দল। তারও আগে আগামী আগস্টে ইন্দোনেশিয়ায় এশিয়ান গেমসের খেলা রয়েছে। সেখানে খুব ভালো যে বাংলাদেশ করতে পারবে না এটা বলেই দেওয়া যায়। সে কারণেই মূল্ লক্ষ্য সেপ্টেম্বরে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। এই দুটি আসরের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে কাতার কন্ডিশনিং ক্যাম্প করছে বাংলাদেশ। সেখান থেকে ফিরে থাইল্যান্ডে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে জাতীয় দলের। এরপর ২৭ মার্চ লাওসের বিপক্ষে ফিফা প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি হবে অ্যান্ড্রু অর্ডের শিষ্যরা।

    মূলত শক্তিশালী একটি জাতীয় দল গড়তেই এতকিছুর আয়োজন করছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। তার আগে ৩৫ জনকে নিয়ে প্রাথমিক ক্যাম্প করেছে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি)। গত ১৩ আগস্ট শুরু হয়েছিল এ অনুশীলন ক্যাম্প। ১১ জনকে ছেটে ফেলে ২৪ জনকে নিয়েই কাতারে গেছে বাংলাদেশ দল। বিশ্বকাপের দেশটি থেকে ফেরার পর আবাহনী লিমিটেডের ফুটবলাররা দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। দীর্ঘসময় ধরে খেলা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে খেলোয়াড়দের একটু আলাদাভাবেই তৈরি করেছেন কোচ। কিছুটা শান্ত, ছায়া সুনিবিড় পরিবেশে খেলোয়াড়দের নিয়ে কাজ করাই লক্ষ্য তাদের।

    সেপ্টেম্বরের সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপকে সামনে রেখে সাত মাস আগে থেকেই সেই টুর্নামেন্টের প্রস্তুতি শুরু করেছে বাংলাদেশ দল। এক সময় দক্ষিণ এশিয়ার ‘বিশ্বকাপ’ নামে পরিচিত সাফ ফুটবলে আধিপত্য ছিল। ২০০৫ সালের পর কখনো আর এই আসরের ফাইনালে খেলা হয়নি বাংলাদেশের। এর আগে ২০১৬ সালের ১০ অক্টোবর ভুটান বিপর্যয়ের পর বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ছিল দেশের ফুটবল।

    ২২ মাস জাতীয় দল মাঠের বাইরে থাকলেও বয়সভিত্তিক ও নারী ফুটবল আলোচনায় ছিল। ২০১৮ সালে জাতীয় দলের খুব বেশি খেলা না থাকলেও আন্তর্জাতিক ফুটবলের উঠানে ব্যস্ততা থাকবে বাংলাদেশের। ব্যস্ততাটা বেশি থাকবে মেয়েদের। এবার ছেলেরাও ব্যস্ত হতে যাচ্ছে। কোচ অর্ড যদিও রাতারাতি অলিক কোনো কিছু করতে চাইছেন না। তার কাছে ম্যাচের পর ম্যাচ ফলাফল করাই মূল লক্ষ্য। তাতেই একটা সময় বড় সাফল্যের পথেই হাটতে পারবে দল। সে কারণেই বিকেএসপিতে অনুশীলন ম্যাচে আবাহনী লিমিটেডের কাছে ৪-০ গোলের পরাজয়েও চিন্তিত তিনি। অনেক নতুনের মিশেলে কিভাবে এগিয়ে যায় বাংলাদেশের ফুটবল সেটিই এখন দেখার বিষয়।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...