ক্রোয়েশিয়াকে ৪-২ গোলে বিধ্বস্ত করে ফ্রান্সের শিরোপা জয় – BD Sports 24
  • ক্রোয়েশিয়াকে ৪-২ গোলে বিধ্বস্ত করে ফ্রান্সের শিরোপা জয়

    July 15th, 2018

    ক্রীড়া ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    মস্কো, ১৫ জুলাই: মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপ ফুটবলের ২১তম আসরের উত্তেজনপূর্ণ ফাইনালে ক্রোয়েশিয়াকে ৪-২ গোলে বিধ্বস্ত করে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ ফুটবলের শিরোপা জয়ের স্বপ্ন পূরণ করলো এমবাপে-পগবারা।

    প্রথমার্ধে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ২-১ গোলে এগিয়ে ছিল দিদিয়ের দেশ্যমের শিষ্যরা। দ্বিতীয়ার্ধে পগবা ও এমবাপের গোলে ৪-১ গোলে লিড নেয় ফ্রান্স। পরে মারিও মান্দজুকিচের গোলে ব্যবধান কমায় ক্রোয়েশিয়া (৪-২)। সেইসাথে ২০ বছর পর আবারও শিরোপা জয়ের স্বাদ পেলো ৯৮’র বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্স। ১৯৯৮ সালে নিজেদের মাঠে ফাইনালে ব্রাজিলকে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করে প্রথমবারের মতো শিরোপা জয়ের স্বাদ পেয়েছিল ফ্রান্স।

    শুরু থেকেই ফাইনালে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ফাইনালে মোট গোল হয়েছে ৬টি। এর মধ্যে প্রথমার্ধে গোল হয়েছে তিনটি।

    ১৮ মিনিটে মারিও মান্দজুকিচের আত্মঘাতি গোলে ১-০তে লিড নেয় ফ্রান্স। এ সময় ডি বক্সের কিছুটা বাইরে ফ্রি-কিক পায় ফ্রান্স। গ্রিজম্যানের নেয়া ফ্রি-কিক ক্লিয়ার করতে লাফিয়ে উঠেন মারিও মান্দজুকিচ। এ সময় তার মাথায় বল লেগে দ্বিতীয় পোস্ট দিয়ে ক্রোয়েশিয়ার জালে বল আশ্রয় নেয় (১-০)।

    কিন্তু এই লিড বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি ফ্রান্স। ১০ মিনিট পরই ক্রোয়েশিয়ার ইভান পেরিসিচ গোল করে সমতা আনেন। এ সময় ডি-বক্সের বেশ বাইরে ফ্রান্সের কন্টে ক্রোয়েশিয়ার ইভান পেরিসিচকে ফাউল করলে রেফারি নেস্তর পিতানা ফাউলের বাঁশি বাজান। ফ্রি-কিক থেকে ডি বক্সের ভেতরে বল পেয়ে কালবিলম্ব না করে ইভান পেরিসিচের নেয়া বাম পায়ের প্রচণ্ড গতির শট ফ্রান্সের গোলরক্ষককে পরাস্ত করে জাল স্পর্শ করে (১-১)। ইভান পেরিসিচের এবারের বিশ্বকাপে তৃতীয় গোল এটি।

    ৩৮ মিনিটে আবারও গোল করে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। এ সময় গ্রিজম্যানের কর্নার কিকে বিপদসীমায় পেরিসিচের হাতে লাগে। ফ্রান্সের খেলোয়াড়রা রিভিউ’র জন্য রেফারি পাতিনকে ঘিরে ধরে। অবশেষে ফ্রান্সের খেলোয়াড়দের চাপের মুখে রিভিউ দেন রেফারি। রিভিউতে পেনাল্টি পায় ফ্রান্স। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি ফ্রান্সের অ্যান্টনি গ্রিজম্যান (২-১)। এর ফলে বিশ্বকাপে চতুর্থ গোলের দেখা পেলেন গ্রিজম্যান। প্রথমার্ধে ২-১এ এগিয়ে থাকে ফ্রান্স।

    দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে দুই দল। ৫৯ মিনিটে পল পগবার গোলে ৩-১এ এগিয়ে যায় ফ্রান্স। এ সময় ডান প্রান্ত থেকে এমবাপে কিছুটা পেছনে ডি বক্সের সামান্য বাইরে বল দেন। পগবা বল ধরেই গোলমুখে শট নেন। কিন্তু ক্রোয়েশিয়ার ডিফেন্ডার ভিদার গায়ে লেগে বল ফেরত আসে। ফিরতি বলে পল পগবার নেয়া বাম পায়ের জোরালো শট ক্রোয়েশিয়ার জাল স্পর্শ করে (৩-১)। পল পগবার এবারের বিশ্বকাপের দ্বিতীয় গোল এটি।

    ৬ মিনিট পর ফ্রান্সের সমর্থকদের আবারও আনন্দে ভাসান ফ্রান্সের স্ট্রাইকার কিলিয়ান এমবাপে। এ সময় বাম প্রান্ত দিয়ে আক্রমণে যায় ফ্রান্স। হার্নান্দেজ বল ধরে দ্রুতগতিতে এগিয়ে গিয়ে ডি বক্সের সামান্য বাইরে বল দেন এমবাপেকে। এমবাপে বল ধরেই বাম পায়ের দর্শনীয় শটে ক্রোয়েশিয়ার জাল কাঁপান (৪-১)। সেইসাথে এবারের বিশ্বকাপে নিজের চতুর্থ গোলটি করেন এমবাপে।

    ৬৯ মিনিটে ফ্রান্সের গোলরক্ষক লরিসের অসতর্কতায় গোল হজম করে ফ্রান্স। এ সময় উমতিতি ব্যাক পাসে বল দেন গোলরক্ষক লরিসকে। লরিসের পায়ে লেগে বল কিছুটা সামনে আসে। এ সময় ক্রোয়েশিয়ার মারিও মান্দজুকিচ ডান পায়ের টোকায় ক্রোয়েশিয়ার জালে বল পাঠান (৪-২)।

    বাকি সময় ক্রোয়েশিয়া বেশ কয়েকবার ফ্রান্সের সীমানায় হানা দিলেও তা থেকে গোল আদায় করতে পারেনি। ফলে ৪-২ গোলে ফ্রান্সের কাছে হেরে রানার্স আপেই সন্তুষ্ট থাকতে হয় প্রথমবারের মতো ফাইনালে খেলা ক্রোয়েশিয়াকে।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা