খুলনাকে হারিয়ে প্লে-অফের আরও কাছে ঢাকা – BD Sports 24
  • খুলনাকে হারিয়ে প্লে-অফের আরও কাছে ঢাকা

    January 3rd, 2020

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ৩ জানুয়ারি: ডান-হাতি পেসার হাসান মাহমুদের দুর্দান্ত বোলিং নৈপুণ্যে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের প্লে-অফের আরও কাছে পৌঁছে গেল মাশরাফি বিন মর্তুজার ঢাকা প্লাটুন। আজ সিলেট পর্বের তৃতীয় ও বঙ্গবন্ধু বিপিএল টুর্নামেন্টের ৩১তম ম্যাচে খুলনা টাইগার্সকে ১২ রানে হারিয়েছে ঢাকা। হাসান ৩২ রান খরচায় একাই শিকার করেন ৪ উইকেট।

     

    প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৭২ রান করে ঢাকা প্লাটুন। জবাবে ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৬০ রান করে খুলনা। এই জয়ে ৯ খেলায় ৬ জয় ও ৩ হারে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে উঠলো ঢাকা। আর ৮ ম্যাচে ৫ জয় ও ৩ হারে ১০ পয়েন্ট থাকলো খুলনা।

     

    সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় খুলনা। ব্যাট হাতে নেমে দলের পক্ষে দলকে ভালো সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও এনামুলক হক বিজয়। ৩৩ বলে ৪৫ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েন তারা। এরমধ্যে ২৩ বলে ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় ২৫ রান করে আউট হন তামিম।

     

    বিজয়ও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। ১৩ বলে ১টি করে চার ও ছক্কায় ১৫ রান করেন তিনি। চার নম্বরে নেমেছিলেন পিঞ্চ হিটার মেহেদি হাসান। এবার ১ রানের বেশি করতে পারেননি তিনি। ফলে ৬২ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে ঢাকা।

     

    এরপর সতর্কতার সাথে খেলে রানের চাকা সচল রাখেন তিন নম্বরে নামা মোমিনুুল হক ও আরিফুল হক। দু’জনের ব্যাটিং দৃঢ়তায় শতরানের কোটা পেরোয় ঢাকা। চতুর্থ উইকেটে ৪৭ বলে ৫৬ রানের জুটি গড়েন তারা। ৩টি চারে ৩৬ বলে ৩৮ রান করে ফিরেন মোমিনুল।

     

    মোমিনুল যখন আউট হন তখন ইনিংসের ২১ বল বাকি ছিলো। দলের স্কোর ছিলো ৪ উইকেটে ১১৮ রান। এ অবস্থায় ব্যাট হাতে ঝড় তুলেন পাকিস্তানের আসিফ আলি। ১৩ বলে ২টি চার ও ৪টি ছক্কায় অপরাজিত ৩৯ রান করেন আসিফ। আর আরিফুলের ব্যাট থেকে আসে ৩৭ রান। ৩০ বলের ইনিংসে ৩টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন আরিফ। তাদের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ৪ উইকেটে ১৭২ রানের বড় সংগ্রহ পায় ঢাকা। খুলনার পাক পেসার মোহাম্মদ আমির ২৭ রানে ২ উইকেট নেন।

     

    জবাবে খেলতে নেমে ঢাকার বোলারদের তোপে পড়ে খুলনার ব্যাটসম্যানরা। ৪৪ রানের মধ্যে ৪ উইকেটের পতন ঘটে তাদের। মেহেদি হাসান মিরাজ ১৫, আমিনুল ইসলাম ৪, দক্ষিণ আফ্রিকার রিলি রুশো ১৮ ও শামসুর রহমান ৩ রান করে ফিরেন। এরমধ্যে হাসান মাহমুদ ২টি, মাশরাফি-শাদাব ১টি উইকেট নিয়েছিলেন।

     

    উপরের সারির চার ব্যাটসম্যানকে হারানোর পর দলের হাল ধরেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও আফগানিস্তানের নাজিবুল্লাহ জাদরান। উইকেটের সাথে দ্রুত মানিয়ে রানের চাকা ঘুরাতে থাকেন তারা। ৪৫ বলে ৫৬ রানের জুটি গড়ে দলের স্কোর শতরানের নিয়ে যান মুশফিক-জাদরান।

     

    মুশফিকুরের সাথে ভুল বুঝাবুঝিতে ১৫তম ওভারে রান আউট হয়ে পঞ্চম উইকেটের জুটি ভাঙ্গে জাদরানের। ২৯ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩১ রান করেন জাদরান। তবে এক প্রান্ত আগলে দলের জয়ের আশা টিকিয়ে রেখেছিলেন ২৬ বলে হাফ-সেঞ্চুরি পাওয়া মুশফিক।

     

    শেষ পর্যন্ত ১৯তম ওভারের পঞ্চম বলে মুশফিককে বিদায় দেন ঢাকার পেসার হাসান। আর সেখানেই ঢাকার জয় নিশ্চিত হয়ে যায়। ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৬০ রানের বেশি করতে পারেনি খুলনা। ৩৩ বলে ৬টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৬৪ রান করেন মুশফিক। ৩২ রানে ৪ উইকেট নিয় ম্যাচসেরা হন ঢাকার হাসান মাহমুদ। বাসস।

     

    সংক্ষিপ্ত স্কোর:
    ঢাকা প্লাটুন: ১৭২/৪, ২০ ওভার (আসিফ ৩৯*, মোমিনুল ৩৮, আমির ২/২৭)।
    খুলনা টাইগার্স: ১৬০/৮, ২০ ওভার (মুশফিক ৬৪, জাদরান ৩১, হাসান ৪/৩২)।
    ফলাফল: ঢাকা প্লাটুন ১২ রানে জয়ী।
    ম্যাচসেরা: হাসান মাহমুদ  (ঢাকা প্লাটুন)।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...