জেএফএ কাপের মূল পর্ব শুক্রবার শুরু – BD Sports 24
  • জেএফএ কাপের মূল পর্ব শুক্রবার শুরু

    July 11th, 2019

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ১১ জুলাই: গত ১৭-২৮ জুন পর্যন্ত দেশের ছয়টি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হয় ‘জেএফএ অনূর্ধ্ব-১৪ জাতীয় মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১৯’ এর আঞ্চলিক পর্ব তথা বাছাইপর্বের খেলা।

    ছয় ভেন্যুর ছয় চ্যাম্পিয়ন দল ও তার সঙ্গে দুটি সেরা রানার্স-আপ দলসহ মোট আটটি দল চূড়ান্তপর্ব তথা ঢাকা পর্বের টিকিট পায়। এই আট দলকে নিয়ে  ১২ জুলাই  শুক্রবার থেকে কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে শুরু হবে চূড়ান্তপর্ব। যা ১৯ জুলাই ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।

    মূলপর্ব সম্পর্কে বিস্তারিত জানানোর জন্য বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেএফএ কাপের কো-স্পন্সর ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক (গেমস অ্যান্ড স্পোর্টস, মার্কেটিং) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), ফিফার কাউন্সিল মেম্বার, বাফুফের সদস্য ও মহিলা উইং এর চেয়ারম্যান মিস মাহফুজা আক্তার কিরণ, বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগসহ অন্যান্যরা।

    সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা আটটি দলকে দুই গ্রুপে ভাগ করে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। তার মধ্যে ‘ক’ গ্রুপে রয়েছে টাঙ্গাইল জেলা, রাজশাহী জেলা, মাগুরা জেলা ও ঠাকুরগাঁও জেলা। ‘খ’ গ্রুপে রয়েছে রাঙ্গামাটি জেলা, রংপুর জেলা, মানিকগঞ্জ জেলা ও ময়মনসিংহ জেলা।

    ১২ থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত গ্রুপপর্বের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিদিনি দুটি করে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম ম্যাচ দুপুর ২টায় ও দ্বিতীয় ম্যাচ বিকেল ৪টায় শুরু হবে। দুই গ্রুপের সেরা চারটি দল সেমিফাইনালে জায়গা করে নিবে। ১৮ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে দুটি সেমিফাইনাল। আর ১৯ জুলাই হবে ফাইনাল।

    প্রতিটি ম্যাচ হবে ৭০ মিনিটের (প্রথমার্ধে ৩৫ ও দ্বিতীয়ার্ধে ৩৫ মিনিট)। মাঝে ১০ মিনিটের বিরতি থাকবে।

    সংবাদ সম্মেলনে মাহফুজা আক্তার কিরণ বলেন, ‘১৭ জুন থেকে ২৮ জুন পর্যন্ত জেএফএ কাপের বাছাইপর্ব অনুষ্ঠিত হয়। ছয় ভেন্যুর ছয় চ্যাম্পিয়নের সঙ্গে ফেয়ার প্লে এর ভিত্তিতে দুটি সেরা রানার্স-আপ দলকেও চূড়ান্ত পর্বে আনা হয়েছে। তাদের নিয়ে আগামীকাল থেকে শুরু হবে চূড়ান্তপর্ব। এটা একটা ট্যালেন্ট হান্ট প্রোগ্রাম। এখান থেকে খেলোয়াড় বাছাই করে দীর্ঘমেয়াদে আবাসিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। তাদের ট্রায়ালে রাখা হয়। চূড়ান্ত পর্বে অংশ নেওয়া প্রত্যেকটি দল ২৫ হাজার টাকা করে অংশগ্রহণ ফি পাবে। চ্যাম্পিয়ন দল ৫০ হাজার ও রানার্স-আপ দল ২৫ হাজার টাকা প্রাইজমানি পাবে। এ ছাড়া ট্রফি, ফেয়ার প্লে অ্যাওয়ার্ড, সেরা গোলদাতা, টুর্নামেন্ট সেরা, মোস্ট ভ্যালুয়াবল প্লেয়ার অ্যাওয়ার্ড থাকবে।’

    এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘আমরা নারী ফুটবলকে এগিয়ে নিতে বাফুফের সঙ্গে আছি সব সময়। আমরা ওয়ালটন পরিবার নারী ফুটবলের শুরু থেকেই ছিলাম। জেএফএ কাপের আগের চার আসরের সঙ্গেও ছিলাম। এবারও আছি। কিরণ আপা বলেছেন এটা এক ধরনের ট্যালেন্ট হান্ট প্রতিযোগিতা। এই ধরনের প্রতিযোগিতার সঙ্গে ওয়ালটন পরিবার সর্বদাই থাকার চেষ্টা করে। ইনশাল্লাহ ভবিষ্যতে আরো বড় পরিসরে থাকার চেষ্টা করব। আর চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলকে প্রাইজমানি ও ট্রফির পাশাপাশি ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকেও পুরস্কৃত করা হবে।’

    ছয় ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত পর্বের ময়মনসিংহ ভেন্যু থেকে টাঙ্গাইল জেলা চ্যাম্পিয়ন হয়ে ও ময়মনসিংহ জেলা রানার্স-আপ হয়ে চূড়ান্তপর্বে এসেছে। রংপুর ভেন্যু থেকে রংপুর জেলা চ্যাম্পিয়ন হয়ে ও ঠাকুরগাঁও জেলা রানার্স-আপ হয়ে চূড়ান্তপর্বে জায়গা পেয়েছে। রাজশাহী ভেন্যু থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে রাজশাহী জেলা, যশোর ভেন্যু থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে মাগুরা জেলা, খাগড়াছড়ি ভেন্যু থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে রাঙ্গামাটি জেলা, গোপালগঞ্জ ভেন্যু থেকে চ্যাম্পিয়ন মানিকগঞ্জ জেলা চূড়ান্তপর্বে এসেছে।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে

     


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা