টটেনহ্যামকে পরাজিত করে জয়ে শুরু এভারটনের – BD Sports 24
  • টটেনহ্যামকে পরাজিত করে জয়ে শুরু এভারটনের

    September 14th, 2020

    স্পোর্টস ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    লন্ডন, ১৪ সেপ্টেম্বর: কার্লো আনচেলত্তির পূর্ণ মেয়াদের প্রথম মৌসুমের সূচনা দারুণভাবে করেছে এভারটন। নতুন চেহারার এভারটন রোববার প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে টটেনহ্যাম হটস্পারকে ১-০ গোলে পরাজিত করেছে। টটেনহ্যামের মাঠে ৫৫ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন ইংলিশ অ্যাটাকার ডোমিনিক কালভার্ট-লুইন। ২০১২ সালের পর স্পার্সদের বিপক্ষে এটাই এভারটনের প্রথম জয়।

     

    নতুন মৌসুমকে সামনে রেখে আনচেলত্তি হামেস রদ্রিগেজ, আবদুলায়ে ডুকুরে ও এ্যালানকে দলে নিতে ক্লাবকে সবদিক দিয়ে চাপ দিয়ে সফল হয়েছে। আর তার প্রতিফলন টফিসদের প্রথম ম্যাচেই দেখা গেছে। গত মৌসুমে ১২তম স্থানে থেকে লিগ শেষ করা দলটির থেকে অনেকটাই পরিণত দল নিয়ে এবার তারা মাঠে নেমেছে। স্পার্সদের বিপক্ষে যোগ্যতম দল হিসেবেই তারা জয়ী হয়েছে।

     

    হোসে মরিনহোর অধীনে ঘরের মাঠে টটেনহ্যামও মৌসুমের শুরুটা জয় দিয়েই করতে আশাবাদী ছিল। কিন্তু তাদের খেলার মধ্যে পরিকল্পনা অভাব দেখা গেছে। গত মৌসুমে একেবারে শেষ প্রান্তে এসে শীর্ষ চারের স্থান হাতছাড়া করতে হয়েছিল। এবার তাই প্রথম থেকেই নিজেদের ধরে রাখার চ্যালেঞ্জটাই মরিনহোর মাঝে কাজ করছে।

     

    নতুনভাবে সাজানো মধ্যমাঠের ট্রায়োকে দিয়ে এভারটন খুব দ্রুতই ম্যাচে নিজেদের গুছিয়ে নেয়। মধ্যমাঠের কারণেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণও বারবার এভারটনের দিকেই চলে আসছিল। কিন্তু কাউন্টার অ্যাটাক থেকে তারা প্রথমেই ম্যাচের সবচেয়ে সেরা সুযোগটি নষ্ট করে। বেন ডেভিসের পাস ইন্টারসেপ করে নিয়ে নেয় রিচারলিসন। টবি অল্ডারউইরাল্ডকে কাটিয়ে হুগো লোরিসকে একা পেয়েও তা কাজে লাগাতে পারেননি।

     

    কাল টটেনহ্যামের হয়ে সবচেয়ে আক্রমণাত্মক ম্যাচ উপহার দিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার তারকা স্ট্রাইকার সন হেয়াং-মিন। তার কারণেই টটেনহ্যাম বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগ সৃষ্টি করেছিল। তার একটি ক্রস হ্যারি কেন কাজে লাগাতে পারেননি। এরপর আবারো তার পাসে ডেলে আলির শট দারুণ দক্ষতায় রুখে দেন এভাটনের ইংলিশ গোলরক্ষক জর্ডান পিকফোর্ড।

     

    এভারটনের জার্সি গায়ে অভিষেক হওয়া কলম্বিয়ান উইঙ্গার হামেসের একটি শট অল্পের জন্য পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়। কেনের পাস থেকে ম্যাট দোহার্তি প্রথমার্ধে স্পার্সদের সবচেয়ে সেরা সুযোগটি হাতছাড়া করে। তবে এবারও এভারটনকে জীবন ফিরিয়ে দিয়েছিলেন পিকফোর্ড।

     

    গত জুলাইয়ে টটেনহ্যাম হটস্পার স্টেডিয়াম সফরে এভারটনকে ১-০ গোলের পরাজয় বরণ করতে হয়েছিল। কিন্তু সেই দলের তুলনায় অনেকটাই বদলে যাওয়া এভারটন যেন তার মধুর প্রতিশোধই নিল। স্পার্সদের বিপক্ষে ১৬ ম্যাচ পরে জয় তুলে নেয়াটা তাই এভারটনের জন্য গর্বেরই বটে। ৫৫ মিনিটে এগিয়ে যাবার আগে বক্সের ভিতর থেকে হামেসের শট বাইরে চলে যায়। হামেসের আরেকটি নিখুঁত ক্রস থেকে রিচারলিসনের হেড গোলের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। কিন্তু লুকাস ডিগনের ফ্রি-কিক থেকে কালভার্ট-লুইন আর ভুল করেননি।

     

    এর আগে শুক্রবার মরিনহো বলেছিলেন ট্রান্সফার উইন্ডো বন্ধ হবার আগে কেনের সহযোগী হিসেবে তিনি আরেকজন স্ট্রাইকারকে দলে নিতে চান। কিন্তু ইংলিশ অধিনায়ক কেন বেশ কিছুদিন যাবত ফর্মহীন থাকায় নতুন কেউ আসলে দলের প্রয়োজনে তাকে কেনের থেকে অবশ্যই ভালো হয়ে উঠতে হবে। ম্যাচের শেষের দিকে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার রিচারলিসন দুইবার লোরিসকে পরীক্ষায় ফেলেছিলেন। বাসস।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...