ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের রানের পাহাড় – BD Sports 24
  • ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের রানের পাহাড়

    November 12th, 2018

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ১২ নভেম্বর: মুশফিকুর রহীমের রেকর্ড অপরাজিত ২১৯ রানের সুবাদে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে রানের পাহাড় গড়েছে বাংলাদেশ। আজ মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ইনিংসে ১৬০ ওভার মোকাবেলায় ৭ উইকেটে ৫২২ রান স্কোরবোর্ডে জমা হওয়ার পর টাইগার অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ ইনিংস ঘোষণা করেন।

    দিন শেষে প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ে ১৮ ওভার মোকাবেলায় ১ উইকেটে ২৫ রান করতে সক্ষম হয়। ফলে ৪৯৭ রানে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ।

    পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশের সাবেক টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহীমের রেকর্ডময় দিনে ৫৮৯ মিনিট ক্রিজে থেকে ৪২১ বল মোকাবেলায় ২১৯ রানের অপরাজিত ইনিংস উপহার দেন নিজ দলকে।

    গতকাল প্রথম দিন শেষে ৯০ ওভার মোকাবেলায় বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৩০৩/৫। মুশফিকুর রহীম ১১১ এবং মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ ০ রানে অপরাজিত ছিলেন। আজ দ্বিতীয় দিনে মুশফিকুর রহীম ও মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ ৭৩ রানের জুটি গড়ে বিচ্ছিন্ন হন। দলীয় রান তখন ৩৭২। অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ ৩৬ রান করে আউট হন। ৩৭৮ রানে বিদায় নেন আরিফুল হক (৪ রান)। সেইসাথে সপ্তম উইকেট হারায় স্বাগতিকরা।

    অষ্টম উইকেটে তরুণ ক্রিকেটার মেহেদী হাসানকে মিরাজকে সাথে নিয়ে মুশফিকুর রহীম ১৪৪ রানের অবিচ্ছিন্ন পার্টনারশিপ গড়লে ১৬০ ওভার মোকাবেলায় বাংলাদেশের স্কোর দাঁড়ায় ৫২২/৭। মূলত মুশফিকুর রহীমের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোরের রেকর্ড গড়ার জন্যই অপেক্ষা করছিলেন অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ। সাকিব আল হাসানকে (২১৭ রান) পেছনে ফেলার ওভারেই ইনিংস ঘোষণা করেন মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ। শেষ অবধি ২১৯ রানে অপরাজিত ছিলেন মুশফিকুর রহীম। ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরির দু’টি ডাবল সেঞ্চুরি তার।

    ৯ নম্বরে ব্যাট করতে নামা মেহেদী হাসান মিরাজ ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরির দেখা পান আজ। জিম্বাবুয়ে স্পিনার সিকান্দার রাজার ২১তম ওভারের তৃতীয় বলটি লং অনের উপর দিয়ে ছক্কা হাঁকিয়ে অর্ধশত রান পূর্ণ করেন মিরাজ। ৭৮ বল মোকাবেলায় অর্ধশত রান করেন তিনি।

    ইনিংস ঘোষণার সময় ১০২ বলে ৫ বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় ৬৮ রানে অপরাজিত থাকেন বাংলাদেশের তরুণ এই ক্রিকেটার। এদিন টেস্টে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানকেও (৫১ রান) টপকে যান তিনি।

    জিম্বাবুয়ের বোলারদের মধ্যে কাইল জার্ভিস ৭১ রান খরচায় একাই শিকার করেন ৫ উইকেট।

    প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নামা জিম্বাবুয়ে ২০ রান তুলতেই প্রথম উইকেট হারায়। ওপেনার হ্যামিলটন মাসাকাদজা টাইগার স্পিনার তাইজুল ইসলাম চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে প্রথম স্লিপে মেহেদী হাসান মিরাজের ক্যাচে পরিণত হন। ১৪ রানের বেশি এগুতে পারেননি জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক।

    দ্বিতীয় দিন শেষে ১৮ ওভার মোকাবেলায় জিম্বাবুয়ে স্কোরবোর্ জমা করে ২৫/১। ব্রায়ান চারি ১০ এবং তিরিপানো ০ রানে অপরাজিত ছিলেন।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা