তামিম, মুশফিক ও মুমিনুল নৈপুণ্যে প্রথম দিনটি বাংলাদেশের – BD Sports 24
  • তামিম, মুশফিক ও মুমিনুল নৈপুণ্যে প্রথম দিনটি বাংলাদেশের

    January 31st, 2018

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    চট্টগ্রাম, ৩১ জানুয়ারি: শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি আজ বন্দরনগরী চট্টগ্রামের জহুর আহমদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে। টস জিতে বাংলাদেশ ব্যাট করতে নেমে তামিম, মুশফিক ও মুমিনুলের নৈপুণ্যে প্রথম দিন শেষে ৪ উইকেটে ৩৭৪ রান সংগ্রহ করেছে। ওভার মোকাবেলা করেছে ৯০টি। ফলে প্রথম  ইনিংসের রানের পাহাড় গড়তে যাচ্ছে স্বাগতিকরা। সেইসাথে প্রথম দিনটি নিজেদের করে নিয়েছেন লাল-সবুজ পতাকাধারীরা।

    দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস শুরুটা করেছিলেন টি-২০ মেজাজে। ৩ ওভারেই ২২ রান স্কোরবোর্ডে জমা করেন। এর মধ্যে তামিমীয় ভঙ্গিতে ড্যাশিং ওপেনার তামিমের ব্যাট থেকে এসেছে ২০ রান। ১৫.৫ ওভারে ৭২ রান স্কোরবোর্ডে জমা হওয়ার পর বিদায় নেন তামিম। ৫৩ বলে ৬ বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় ৫২ রান করেন তামিম। এদিন ২৫তম টেস্ট ফিফটির দেখা পান তিনি।

    তামিমের বিদায়ের ক্রিজে আসেন অপ্রতিরোধ্য মুমিনুল হক। ইমরুল-মুমিনুল দ্বিতীয় উইকেটে ৪৮ রান যোগ করে বিচ্ছিন্ন হন। ইমরুল কায়েস আউট হন ৪০ রান করে।

    এর পরের গল্পটা শুধুই মুমিনুল ও সাবেক টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহীমের। লঙ্কান বোলারদের পাত্তা না দিয়েই সাবলীল ভঙ্গিতে ব্যাট চালাতে থাকেন তারা। এই জুটি ৬৬.১ ওভার মোকাবেলায় ২৩৬ রানের পার্টনারশিপ গড়ে বিচ্ছিন্ন হন। মুশফিকুর রহীম সুরঙ্গা লাকমালের বলে উইকেটরক্ষক ডিকবেলার হাতে ধরা পড়ার আগে নিজের নামের পাশে যোগ করেন ৯২ রান। ক্যারিয়ারের ১৯তম ফিফটি পূর্ণ করেন এদিন মুশফিক। মাত্র ৮ রানের জন্য ৬ষ্ঠ টেস্ট শতক বঞ্চিত হন তিনি।

    মুমিনুল হকের তুলনায় মুশফিক খেলেন সম্পূর্ণ টেস্ট মেজাজে। ৯২ রান করতে ১৯২ বল মোকাবেলা করেন মুশফিক। ১০ বার সীমানার বাইরে বল পাঠান তিনি। মুশফিক যখন আউট হন দলীয় রান তখন ৩৫৬। মুশফিকুর রহীমের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস। সুরঙ্গা লাকমালের পরের বলেই সরাসরি বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেন লিটন কুমার দাস। মাত্র ১ বল মোকাবেলা করেন তিনি। রান নেয়ার প্রশ্নই আসে না।

    এরপর মুমিনুলের সাথে জুটি বাধেন অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ। এই জুটি ১৮ রান যোগ করার পর প্রথম দিনের খেলা শেষ হয়। মুমিনুল ১৭৫ ও মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ ৯ রানে অপরাজিত রয়েছেন। মুমিনুল ওয়ানডে স্টাইলে তার স্বভাবজাত ব্যাট করেন এদিন। ২০৩ বল মোকাবেলায় ১৬টি বাউন্ডারি ও একটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন মুমিনুল। এদিন ১৬০ রান করার পথে টেস্টে ২ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন বাংলাদেশী এই বাহাতি ক্রিকেটার। ২৬তম টেস্টে এসে ২ হাজার রানের ক্লাবে নাম লেখালেন তিনি। দিন শেষে ১৭৫ রানে অপরাজিত থাকায় টেস্টে েএখন তার মোট রান ২০১৫।

    মুমিনুল হক এদিন ক্যারিয়ারের পঞ্চম শতকের দেখা পান। টেস্টে তার এক ইনিংসে সর্বোচ্চ সংগ্রহ ১৮১ রান। আগামীকাল দ্বিতীয় দিন ২৫ রান যোগ করতে পারলেই টেস্টে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির দেখা মিলবে তার।

    লঙ্কান পেসার সুরঙ্গা লাকমাল শিকার করেন ২ উইকেট। এছাড়া পেরেরা ও সান্দাকান একটি করে উইকেট নেন।

     

    বিডিস্পোরর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা