তৃতীয় জয়ের মুখ দেখলো রংপুর – BD Sports 24
  • তৃতীয় জয়ের মুখ দেখলো রংপুর

    December 31st, 2019

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ৩১ ডিসেম্বর: বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ নাইমের ৫৫ ও পেসার তাসকিন আহমেদের ৪ উইকেট শিকারে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে তৃতীয় জয়ের মুখ দেখেছে রংপুর রেঞ্জার্স। আসরের ২৮তম ম্যাচে রাজশাহী রয়্যালসকে ৪৭ রানে হারিয়েছে রংপুর রেঞ্জার্স। ৮ ম্যাচে ৩ জয় ও ৫ হারে ৬ পয়েন্ট রংপুরের। আর ৮ ম্যাচে ৫ জয় ও ৩ হারে ১০ পয়েন্ট রাজশাহীর। প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮২ রান করে রংপুর রেঞ্জার্স। জবাবে ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৩৫ রান করে রাজশাহী।

     

    মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন রাজশাহী রয়্যালসের ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক আান্দ্রে রাসেল। ব্যাট হাতে নেমেই মারমুখী হন রংপুরের ওপেনার নাইম। তার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৪ ওভারে ৩৮ রান পায় রংপুর। এরমধ্যে ৭ রান অবদান রেখে ফিরেন অধিনায়ক শেন ওয়াটসন।

     

    এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার ক্যামেরন ডেলপোর্টকে নিয়ে ৪২ বলে ৫৪ রানের জুটি গড়েন নাইম। দ্রুত রান তুলতে ডেলপোর্টকে স্ট্রাইক দেন নাইম। তবে ৪০ বলে এবারের আসরে দ্বিতীয় হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন নাইম। তার হাফ-সেঞ্চুরির পর ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ১৭ বলে ৩১ রানে আউট হন ডেলপোর্ট। ওয়াটসনকে ফেরানো আফিফ শিকার করেন ডেলপোর্টকে।

     

    হাফ-সেঞ্চুরির পর থামতে হয় নাইমকেও। ৬টি চার ও ১টি ছক্কায় ৪৭ বলে ৫৫ রান করেন নাইম। ১৩ দশমিক ২ ওভারে দলীয় ১১০ রানে নাইমের বিদায়ের রংপুরকে বড় সংগ্রহ এনে দেন ইংল্যান্ডের লুইস গ্রেগরি-আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবী, আল-আমিন ও উইকেটরক্ষক জহিরুল ইসলাম। গ্রেগোরি ১৭ বলে ২৮, নবী ১২ বলে ১৬, আল-আমিন ১০ বলে অপরাজিত ১৫ ও জহিরুল ৮ বলে ৪টি চারে অপরাজিত ১৯ রান করেন। রাজশাহীর পাকিস্তানের মোহাম্মদ ইরফান-আফিফ ২টি করে উইকেট নেন।

     

    জয়ের জন্য ১৮৩ রানের লক্ষ্যে শুরুটা ভালো হয়নি রাজশাহীর। চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে আউট হন আফিফ হোসেন। ৭ রান করে ফিরেন পেসার তাসকিন আহমেদের বলে ফিরেন তিনি। মিড-অফে ডান-দিকে ঝাপিয়ে পড়ে দুর্দান্ত ক্যাচ নেন গ্রেগরি। এরপর আরেক ওপেনার লিটন দাসকেও ১৫ রানে থামিয়ে দেন তাসকিন। পরের বলে পাকিস্তানের শোয়েব মালিককে বোল্ড করে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা সৃষ্টি করেন তাসকিন। কিন্তু সেটি আর হয়নি।

     

    এরপর অলক কাপালির ৩১ ও ইংল্যান্ডের রবি বোপারার ১৯ বলে ২৮ রানে ১৪ ওভারে ৯১ রানে পৌছায় রাজশাহী। ফলে শেষ ৬ ওভারে ৯২ রান দরকার পড়ে রাজশাহীর। আস্কিং রেট ছিলো ১৫ দশমিক ৩৩।

     

    এ অবস্থায় ২টি ছক্কা ও ১টি চারে রাজশাহীকে জয়ের স্বপ্ন দেখার সাহস দেন রাসেল। কিন্তু ৭ বলে ১৭ রান করে রান আউট হন রাসেল। আর সেখানেই রাজশাহীর জয়ের সকল আশা শেষ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১৩৫ রান করে রাজশাহী। রংপুরের তাসকিন ৪ ওভারে ২৯ রানে ৪ উইকেট নেন। বাসস।

     

    সংক্ষিপ্ত স্কোর:
    রংপুর রেঞ্জার্স : ১৮২/৬, ২০ ওভার (নাইম ৫৫, ডেলপোর্ট ৩১, ইরফান ২/৩৫)।
    রাজশাহী রয়্যালস : ১৩৫/৮, ২০ ওভার (কাপালি ৩১, বোপারা ২৮, তাসকিন ৪/২৯)।
    ফল : রংপুর রেঞ্জার্স ৪৭ রানে জয়ী।
    ম্যাচসেরা : লুইস গ্রেগরি (রংপুর রেঞ্জার্স)।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...