প্রথম জয়ের স্বাদ পেলো মুম্বাই – BD Sports 24
  • প্রথম জয়ের স্বাদ পেলো মুম্বাই

    April 17th, 2018

    ক্রীড়া ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    মুম্বাই, ১৭ এপ্রিল: নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে এসে প্রথম জয়ের স্বাদ পেয়েছে আইপিএলের গত আসরের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। আজ নিজেদের মাঠে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুকে ৪৬ রানে হারিয়েছে মুম্বাই। আগের তিন ম্যাচের মতো এ ম্যাচেও টসে হেরেছিলেন রোহিত শর্মা। কিন্তু আগের তিন ম্যাচে হারলেও ব্যতিক্রম ঘটনা ঘটেছে আজ। আজ জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে রোহিত শর্মার দল।

    মুম্বাই-এর করা ২১৩ রান তাড়া করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৬৭ রানের বেশি এগুতে পারেনি আরসিবি। ফলে ৪৬ রানে হেরে যায় তারা। অধিনায়ক বিরাট কোহলি ছাড়া আরসিবির আর কোনো ব্যাটসম্যান ব্যাট হাতে জ্বলে ওঠতে পারেননি। কোহলি উদ্বোধনী জুটিতে ব্যাট করতে নেমে শেষ অবধি ব্যাট হাতে লড়াই করে যান। কোহলি ৬২ বলে ৭ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায় ৯২ রানে অপরাজিত থাকেন।

    কোহলি ছাড়া আরসিবির আর মাত্র তিন ব্যাটসম্যান দুই অংকের ঘরে পৌঁছাতে সক্ষম হন। এরা হলেন- কুইন্টন ডি কক (১৯), মানদীপ সিং (১৩) এবং ক্রিস ওকস (১১)।

    মুম্বাইয়ের বোলারদের মধ্যে ক্রুনাল পান্ডে একাই শিকার করেন তিন উইকেট। এছাড়া বুমরাহ ও ম্যাকক্লেনাঘান নেন দুটি এবং মারকান্দে নেন ১ উইকেট। বাংলাদেশি বোলার মোস্তাফিজুর রহমান আজ ৪ ওভার বল করে ৫৫ রান দিয়েছেন। কোনো উইকেট পাননি মোস্তাফিজুর।

    এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে অধিনায়ক রোহিত শর্মা এবং ওপেনার এভিন লুইসের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে ২১৩ রানের বিশাল স্কোর গড়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

    শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে। উমেশ যাদবের প্রথম বলে সূর‌্যকুমার যাদব এবং দ্বিতীয় বলে ইশান কিশান শূন্য রানে ফিরে গেলে শুরুতেই ব্যাকফুটে চলে যায় মুম্বাই।

    কিন্তু তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক রোহিত শর্মা এবং ওপেনার এভিন লুইস ১০৮ রানের বড় পার্টনারশিপ গড়েন। ৬৬ বলে এই জুটি রান যোগ করেন ১০৮টি। এভিন লুইস কোরি এন্ডারসনের বলে কুইন্টন ডি ককের তালুবন্দী হওয়ার আগে নিজের নামের পাশে যোগ করেন ৬৫ রানের একটি ঝলমলে ইনিংস। তার ৪২ বলের ইনিংসে ৬টি চার ও ৬টি ছক্কার মার রয়েছে।

    চতুর্থ উইকেটে রোহিত শর্মা ও ক্রুনাল পান্ডে ৪০ রানের আরো একটি পার্টনারশিপ গড়েন। ১৫ রান করা ক্রুনাল পান্ডে দুর্ভাগ্যজনক রান আউট হয়ে সাজঘরে ফিরেন।

    পঞ্চম উইকেটে রোহিত শর্মা কাইরন পোলার্ডকে সাথে নিয়ে ৩০ রানের আরো একটি পার্টনারশিপ গড়েন। কাইরন পোলার্ড ক্রিস ওকসের বলে এবি ডি ভিলিয়ার্সের হাতে ধরা পড়ার আগে করেন ৫ রান।

    ষষ্ঠ উইকেটে রোহিত শর্মা এবং হার্ডিক পান্ডিয়া মাত্র ১০ বলে ২৯ রান যোগ করেন। ৫২ বলে ১০ বাউন্ডারি ও ৫ ছক্কায়  ৯৪ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে কোরি এন্ডারসনের বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে ক্রিস ওকসের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন। মাত্র ৬ রানের জন্য সেঞ্চুরি বঞ্চিত হন মুম্বাই দলপতি। এবারের আইপিএলে এটিই ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোর।

    শেষদিকে হার্ডিক পান্ডিয়া মাত্র ৫ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় ১৭ রানে অপরাজিত থাকলে ৬ উইকেটে ২১৩ রানের বিশাল স্কোর গড়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

    রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বোলারদের মধ্যে উমেশ যাদব ও কোরি এন্ডারসন দুটি করে এবং ক্রিস ওকস একটি উইকেট নেন। অপরটি রান আউট।

    ম্যাচসেরা হয়েছেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

    ৪ খেলায় ১ জয়ে ২ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে মুম্বাই। অপরদিকে সমসংখ্যক খেলায় ১ জয়ে সপ্তম স্থানে রয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা