বড় হারের পর বড় জয় ঢাকা ডায়নামাইটসের – BD Sports 24
  • বড় হারের পর বড় জয় ঢাকা ডায়নামাইটসের

    November 5th, 2017

    ক্রীড়া প্রতিবেদক:

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ০৫ নভেম্বর: বিপিএলের উদ্বোধনী দিনে সিলেট সিক্সার্সের কাছে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরেছিল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটস। দ্বিতীয় দিনে খুলনা টাইটান্সকে ৬৫ রানের ব্যবধানে হারিয়ে বড় হারের পর বড় জয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ঢাকা।

    ঢাকার দেয়া ২০৩ রানের বিশাল স্কোর তাড়া করতে গিয়ে শুরুতেই হোচট খায় খুলনা টাইটাইন্স। মাত্র ৮ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে তারা।

    তৃতীয় উইকেট জুটিতে ওয়ালটন ও রুশু কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করেন। কিন্তু ব্যক্তিগত ৩০ রানে বিদায় নেন ভালো খেলতে থাকা ওয়ালটন। এরপর ঢাকার বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট খোয়াতে থাকে খুলনা।

    অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ ৪, রুশু ২৩, আরিফুল হক ৫ ও ধনঞ্জয়া ৭ রান করে সাজঘরে ফিরে গেলে ৮৮ রানে ৭ উইকেট হারায় খুলনা। অষ্টম উইকেট জুটিতে আর্চার ও মোশাররফ হোসেন ৪০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে বিছিন্ন হন। আর্চার করেন ৩৬ রান।

    এর পরপরই মোশাররফ ১৭ ও শফিউল ২ রানে বিদায় নিলে ১৮.১ ওভারে ১৩৭ রানে গুটিয়ে যায় খুলনার ইনিংস। ফলে ৬৫ রানের বড় ব্যবধানে জয় পায় ঢাকা।

    ঢাকার বোলারদের মধ্যে আবু হায়দার মাত্র ১৩ রানে শিকার করেন ৩ উইকেট। এছাড়া খালিদ আহমেদ, সাকিব আল হাসান ও সুনীল নারাইন দু’টি করে এবং মোহাম্মদ শহীদ একটি উইকেট শিকার করেন।

    এর আগে টস হেরে খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটস নির্ধারিত ২০ ওভারে ২০২ রানের বড় স্কোর গড়েছে। ঢাকার দুই বিদেশি এভিন লুইস ও ক্যামেরন ডেলপোর্টের ঝড়ো ইনিংসে বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় ঢাকা।

    উদ্বোধনী জুটিতে কুমার সাঙ্গাকারা ও এভিন লুইস পার্টনারশিপ গড়তে ব্যর্থ হয়। ৩৮ রানেই জুটি ভেঙ্গে যায়। কুমার সাঙ্গাকারা ২০ রান করে বিদায় নেন। সাঙ্গাকারার বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন ক্যামেরন ডেলপোর্ট।

    দ্বিতীয় উইকেটে লুইস ও ডেলপোর্ট মারমুখি ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। ঢাকার এই দুই ক্রিকেটার মাত্র ৯ ওভার মোকাবেলায় ১১৬ রানের পার্টনারশিপ গড়ে বিচ্ছিন্ন হন। এভিন লুইস ৪০ বলে সাত বাউন্ডারি ও তিন ছক্কায় ৬৬ রান করেন।

    লুইস আউট হওয়ার পরপরই ডেলপোর্টও বিদায় নেন। তার আগে ৩১ বলে চার বাউন্ডারি ও পাঁচ ছক্কায় নিজের নামের পাশে যোগ করেন ৬৪ রান।

    এই দুই ব্যাটসম্যান আউট হওয়ার পর রান তোলার গতি কমে যায় ঢাকা। এরপর অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ১ রান ও কিরন পোলার্ড ৫ রান করে আউট হন। ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নামা সুনীল নারাইন দ্রুতগতিতে ১১ বলে দুটি বিশাল ছক্কার সাহায্যে ১৬ রান করে আউট হন।

    সবশেষে মোসাদ্দেক হোসেন ১০ ও আবু হায়দার ২ রানে অপরাজিত থাকলে নির্ধারিত ২০ ওভারে দলের স্কোর দাঁড়ায় ২০২/৭।

    খুলনার আবু জায়েদ ও শফিউল ইসলাম দুটি করে এবং আর্চার ও ব্র্যাথওয়েট একটি করে উইকেট নেন।

    ঢাকা ডায়নামাইটসের ক্যামেরন ডেলপোর্ট ম্যাচসেরার পুরস্কার পান।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা