মাদুসানকার হ্যাটট্রিক: ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জিতলো শ্রীলংকা – BD Sports 24
  • মাদুসানকার হ্যাটট্রিক: ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জিতলো শ্রীলংকা

    January 27th, 2018

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি: ‘শেষ ভালো যার, সব ভালো তার’ এই প্রবাদ বাক্যটি আবারো প্রমাণ করলো হাথুরুসিংহের শ্রীলংকা। ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে হারলেও ফাইনালসহ শেষ তিন ম্যাচ জিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জয় করেছে দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলংকা। অপরদিকে প্রথম তিন ম্যাচ জিতলেও শেষ দুই ম্যাচে শ্রীলংকার কাছে হেরে ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জিততে ব্যর্থ হয় স্বাগতিক বাংলাদেশ। আজ শনিবার শ্রীলংকা ফাইনালে বাংলাদেশকে ৭৯ রানে পরাজিত করে শিরোপা জয় করে।

    ২২২ রানে জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরু থেকেই ধুকতে থাকা বাংলাদেশ ৪১.১ ওভারে অভিষিক্ত সিহান মাদুসানকার হ্যাটট্রিকে ১৪২ রানে অলআউট হয়। ফলে ৭৯ রানের হারে শিরোপা হাতছাড়া হয় তাদের।

    শুরুতেই ২২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে স্বাগতিকরা। ওপেনার তামিম ৩, মিথুন ১০ ও সাব্বির ২ রান করে সাজঘরে ফিরেন। চতুর্থ উইকেটে দুই ভায়রা মুশফিকুর রহীম ও মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ ৫৮ রানের পার্টনারশিপ গড়লেও ম্যাচ জেতানোর জন্য তা যথেষ্ট ছিল না। মুশফিকুর রহীম ২২ রান করে আউট হন।

    এরপর মাহামুদুল্লাহ এক প্রান্ত আগলে রাখলেও অপর প্রান্তে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে স্বাগতিকরা। শেষ দিকে অভিষিক্ত অখ্যাত লঙ্কান বোলার সিহান মাদুসানকার হ্যাটট্রিকে ৪১.১ ওভারে ১৪২ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকদের ইনিংস।

    মাদুসানকা তার পঞ্চম ওভারের পঞ্চম বলে মাশরাফির উইকেটটি নেয়ার মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রথম উইকেট শিকার করেন। মাশরাফি মিড উইকেটে মেন্ডিসের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন। পরের পরে রুবেল হোসেনকে সরাসরি বোল্ড করে দ্বিতীয় উইকেট শিকারে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগিয়ে তোলেন।

    মাদুসানকা তার পরের ওভারের প্রথম বলে মাহামুদুল্লাহকে এক্সট্রা কাভারে উপল থারাঙ্গার তালুবন্দী করলে অভিষেকেই হ্যাটট্রিক করার নজির গড়েন। বাম হাতের আঙুলে চোট পাওয়ায় ব্যাট করতে নামতে পারেননি বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

    মাদুসানকা তিনটি এবং ধনঞ্জয়া ও চামিরা দুটি করে উইকেট নেন।

    এর আগে মিরপুর শেরে জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলংকা ৫০ ওভারে ২২১ রানে অলআউট হয়। সর্বোচ্চ ৫৬ রান আসে উপল থারাঙ্গার ব্যাট থেকে। এছাড়া দিনেশ চান্দিমাল ৪৫ ও ডিকবেলা ৪২, কুশল মেন্ডিস ২৮ এবং ধনঞ্জয়া ১৭ রান করে আউট হন।

    বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে পেসার রুবেল হোসেন একাই শিকার করেন ৪ উইকেট। এছাড়া অপর পেসার মোস্তাফিজুর রহমান নেন ২ উইকেট। এছাড়া মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মর্তুজা ও মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন একটি করে উইকেট নেন।

    ম্যাচসেরা হন উপর থারাঙ্গা। আর সিরিজ সেরার পুরস্কার পেয়েছেন থিসারা পেরেরা।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা