শেখ রাসেল কোয়ার্টার ফাইনালে, মুক্তিযোদ্ধার বিদায় – BD Sports 24
  • শেখ রাসেল কোয়ার্টার ফাইনালে, মুক্তিযোদ্ধার বিদায়

    October 31st, 2018

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ৩১ অক্টোবর: ফেডারেশন কাপ ফুটবলে গ্রুপ ‘সি’তে থাকা শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র গ্রুপ পর্বে এক ম্যাচ খেলেই কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম ম্যাচে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র ২-০ গোলে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়াচক্রকে পরাজিত করে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে। টানা দুই ম্যাচ হেরে যাওয়ায় গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয় মুক্তিযাদ্ধা। এছাড়া এই গ্রুপ থেকে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত হয়েছে ঢাকা আবাহনীর।

    গ্রুপ পর্বে প্রথম খেলায় ঢাকা আবাহনী কাছে ১-০ গোলে হেরেছিল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়াচক্র। তাই মুক্তিযোদ্ধা সংসদের জন্য আজকের ম্যাচটি ছিল বাঁচা-মরার লড়াই। সেই বাঁচা-মরার ম্যাচের প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করেও তা কাজে লাগাতে পারেনি মুক্তিযোদ্ধার আক্রমণভাগের খেলোয়াড়রা। এর মধ্যে ২৪ মিনিটে গোলের একটি সহজ সুযোগ নষ্ট করে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কোরিয়ান মিডফিল্ডার ইউসুকি কাতু। ডান প্রান্ত থেকে নিচু ক্রসে বল দেন মুক্তিযোদ্ধার আইভরি কোস্টের ফরোয়ার্ড বাল্লু ফেমাসাস। কিন্তু গোলরক্ষককে একা পেয়েও খুব কাছ থেকে ইউসুকি কাতুর নেয়া শট শেখ রাসেল গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন।

    ৩৯ মিনিটে আবারও গোলের সুযোগ তৈরি করেও কাজে লাগাতে পারেনি মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ফরোয়ার্ড বাল্লু ফেমাসাস। ডান প্রান্ত দিয়ে একক প্রচেষ্টায় ক্ষিপ্রতার সাথে ডি বক্সের ঢুকে ডান পায়ে শট নেন গোলমুখে। কিন্তু তার নেয়া শট ক্রসবারের অনেক উপর দিয়ে বাইরে গেলে গোলের দেখা পায়নি মুক্তিযোদ্ধা।

    ৪২ মিনিটে আবারও গোল করতে ব্যর্থ হন মুক্তিযোদ্ধার কোরিয়ান মিডফিল্ডার ইউসুকি কাতু। ডি বক্সের সামান্য বাইরে থেকে বাল্লু ফেমাসাসের কাছ থেকে বল পেয়ে ইউসুকি কাতু ডান পায়ে শট নেন। তার নেয়া শট সরাসরি শেখ রাসেল গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানার হাতে আশ্রয় নেয়।

    দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই আক্রমণে যায় শেখ রাসেল। ৪৭ মিনিটে বাম প্রান্ত থেকে ইয়ামিন আহমেদ চৌধুরী মুন্নার ক্রসে ফরোয়ার্ড বিপলু আহমেদের নেয়া হেড অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

    ৫২ মিনিটে ইয়ামিন আহমেদ চৌধুরী মুন্নার নেয়া কর্নার কিকে আলিসনের নেয়া হেড সাইড বার ঘেঁষে বাইরে যায়।

    ৫৮ মিনিটে শেখ রাসেলের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড রাফায়েল উদুইনের নেয়া ডান পায়ের শট ক্রসবারের সামান্য উপর দিয়ে বাইরে যায়।

    ৬৮ মিনিটে আবারও সহজ সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি মুক্তিযোদ্ধা। ডান প্রান্ত থেকে ইউনুসা কামারার ক্রস থেকে বাল্লু ফেমাসাস গোলমুখে শট নিলেও তা অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে গোলের দেখা পায়নি মুক্তিযোদ্ধা।

    ৭০ মিনিটে মুক্তিযোদ্ধার রক্ষণভাগের খেলোয়াড় সিন অ্যান্থনির ভুলে গোল পেয়ে যায় শেখ রাসেল। শেখ রাসেলের বদলি খেলোয়াড় ফজলে রাব্বির লম্বা উঁচু পাসের বল মুক্তিযোদ্ধার সিন অ্যান্থনি ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হলে শেখ রাসেলের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড রাফায়েল উদুইন। তিনি বল ধরে দ্রুততার সাথে এগিয়ে গিয়ে মুক্তিযোদ্ধার আগুয়ান গোলরক্ষক আরিফুজ্জামান হিমেলের ডান দিক দিয়ে বল জালে ঠেলে দেন (১-০)।

    ৮৪ মিনিটে রাফায়েল উদুইন গোলের সহজ সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে না পারায় ব্যবধান দ্বিগুণ করা হয়নি শেখ রাসেলের। ডি বক্সের ভেতরে ‍মুক্তিযোদ্ধার গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি শেখ রাসেলের নাইজেরিয়ান এই ফরোয়ার্ড।

    ৯০+২ মিনিটে ডি বক্সের ভেতরে রাফায়েল উদুইনের ছোট পাসে বল পেয়ে ডান পায়ের শটে মুক্তিযোদ্ধার জাল কাঁপান শেখ রাসেলের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড অ্যালেক্স রাফায়েল (২-০)। সেই সাথে ২-০ গোলে মুক্তিযোদ্ধাকে হারিয়ে এক ম্যাচ খেলেই কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে ফেলে একেএম সাইফুল বারী টিটোর শিষ্যরা।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা