সমানতালে লড়ছে শ্রীলংকা – BD Sports 24
  • সমানতালে লড়ছে শ্রীলংকা

    February 1st, 2018

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    চট্টগ্রাম, ০১ ফেব্রুয়ারি: বাংলাদেশের করা প্রথম ইনিংসে ৫১৩ রানের জবাবে ব্যাটে-বলে জবাবটা ভালোই দিচ্ছে শ্রীলংকা। সমানতালে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে সফরকারীরা। দ্বিতীয় দিন শেষে শ্রীলংকা প্রথম ইনিংসে ১ উইকেটে ১৮৭ রান করেছে। ৪৮ ওভার মোকাবেলা করেছে তারা। এর ফলে বাংলাদেশের রান টপকাতে শ্রীলংকার এখনো দরকার ৩২৬ রান।

    স্কোরবোর্ডে কোনো রান না যোগ করতেই প্রথম উইকেট হারায় শ্রীলংকা। স্পিনার মেহেদী হাসানের মিরাজ প্রথম ওভারেই ফিরিয়ে দেন লঙ্কান ওপেনার কারুনারত্নেকে। রানের খাতা খুলতে পারেননি লঙ্কান এই ওপেনার।

    এরপর শ্রীলংকার দুই ব্যাটসম্যান আর কোনো উইকেটের পতন হতে দেননি। দ্বিতীয় উইকেটে কুশল মেন্ডিস ও ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ১৮৭ রানের পার্টনারশিপ গড়ে অবিচ্ছিন্ন থাকেন। কুশল মেন্ডিস ক্যারিয়ারের পঞ্চম ফিফটির দেখা পান এদিন। ১৬২ বলে ৮৩ রানে অপরাজিত থাকেন মেন্ডিস। ওয়ানডাউনে নামা ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ১০৪ রানে অপরাজিত রয়েছেন। এদিন চতুর্থ শতরানের দেখা পান তিনি।

    এর আগে শ্রীলংকার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিক বাংলাদেশ। প্রথম দিনের ৯০ ওভারের সাথে দ্বিতীয় দিনে আরো ৩৯.৫ ওভার অর্থাৎ ১২৯.৫ ওভার মোকাবেলায় ৫১৩ রানের বিশাল স্কোর গড়ে প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় স্বাগতিকরা। ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নামা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অপ: ৮৩ রানের অধিনায়কোচিত ইনিংসের কল্যাণে ৫১৩ রানের বড় স্কোর গড়ে বাংলাদেশ। এদিন ৬৯ রান করার মধ্য দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে ২ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন মাহামুদুল্লাহ।

    প্রথম দিনের ৩৭৪ রানের সাথে আজ দ্বিতীয় দিনে মাত্র ১ রান যোগ করার পরই বিদায় নেন ১৭৫ রানে অপরাজিত থাকা মুমিনুল হক। ১৭৬ রানে সাজঘরে ফিরেন মুমিনুল। দ্বিতীয় দিনে ৯ বল মোকাবেলা করলেও রান পেয়েছেন ১টি। ফলে নিজের ইনিংসকে বেশিদূর নিয়ে যেতে পারেননি তিনি।

    ১৪ রান যোগ করতেই সাজঘরে ফিরেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। দলীয় রান তখন ৩৯০। মোসাদ্দেক ৮ রানের বেশি এগুতে পারেননি। মোসাদ্দেকের বিদায়ে ক্রিজে আসেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ওয়ানডে স্টাইলে ১৯ বলে ১ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ২০ রান করে দুর্ভাগ্যজনক রান আউট হন মিরাজ। ফলে সপ্তম উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। মাহামুদুল্লাহ-মিরাজ ২৭ রানের পার্টনারশিপ গড়েন।

    অষ্টম উইকেট জুটিতে অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ ও অভিষিক্ত সানজামুল ইসলাম ৫৮ রানের পার্টনারশিপ গড়ে বিচ্ছিন্ন হন। সানজামুল ৫৬ বলে একটি চারের সাহায্যে ২৪ রান করে আউট হন। দলীয় রান তখন ৪৭৫। ১ রান করা টেলএন্ডার তাইজুল রঙ্গনা হেরাথের বলে বোল্ড হয়ে গেলে নবম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। দলীয় রান তখন ৪৭৮।

    দশম উইকেটে অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ পেসার মোস্তাফিজুর রহমানকে সাথে নিয়ে ৩৫ রানের পার্টনারশিপ গড়লে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস থামে ৫১৩ রানে। টেল এন্ডার মোস্তাফিজ ২১ বলে একটি ছক্কার সাহায্যে ৮ রান করেন। লঙ্কান স্পিনার রঙ্গনা হেরাথের ৩৭তম ওভারের চতুর্থ বলটি এক অসাধারণ শটে লং-অনের উপর দিয়ে ছক্কা হাঁকান মোস্তাফিজ। পরে সুরঙ্গা লাকমালের বাউন্সে উইকেটর পেছনে ক্যাচ দিতে বাধ্য হন ৮ রান করা মোস্তাফিজ। মাহামুল্লাহ ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৮৩ রানে অপরাজিত থাকেন। তার ১৩৪ বলের ইনিংসে ৭টি চার ও  ২টি ছক্কার মার রয়েছে। এদিন ক্যারিয়ারের ১৫তম ফিফটির দেখা পান তিনি। ১৭ রানের জন্য নিজের দ্বিতীয় টেস্ট শতকের দেখা পাননি তিনি।

    লঙ্কান বোলারদের মধ্যে রঙ্গনা হেরাথ ও সুরঙ্গা লাকমাল তিনটি করে, সান্দাকান দুটি এবং দিলরুয়ান পেরেরা নেন এক উইকেট।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা