সাকিব-তামিম নৈপুণ্যে বিধ্বস্ত জিম্বাবুয়ে – BD Sports 24
  • সাকিব-তামিম নৈপুণ্যে বিধ্বস্ত জিম্বাবুয়ে

    January 15th, 2018

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ১৫ জানুয়ারি: সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালের নৈপুণ্যে ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৮ উইকেটে বিধ্বস্ত করেছে টাইগাররা। বল হাতে এদিন জ্বলে ওঠেন সাকিব। ৪৩ রান খরচায় নেন তিন উইকেট। আবার ব্যাট করতে নেমে করেন ৩৭ রান। ওপেনার তামিম ইকবাল অপরাজিত থাকেন ৮৪ রানে।

    ১৭১ রানে জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দলীয় ৩০ রানে আউট হন ওপেনার এনামুল হক। ৪ বাউন্ডারিতে ১৪ বলে ১৯ রান করেন এনামুল। এরপর অপর ওপেনার তামিমের সাথে জুটি বাধেন সাকিব আল হাসান। এই জুটি ৭৮ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। সাকিব আউট হন ৩৭ রান করে। দলীয় রান তখন ১০৮। আর জয় থেকে ৬৩ রান দূরে টাইগাররা। কিন্তু বাকি কাজটুকু সারতে মোটেও বেগ পেতে হয়নি তামিম-মুশফিকুর রহীমকে। এই দুই ব্যাটসম্যান আর কোনো উইকেটের পতন হতে না দিয়ে ৯.২ ওভারে ৬১ রান যোগ করলে ২৮.৩ ওভারে ২ উইকেটে ১৭১ রান সংগ্রহ করে স্বাগতিকরা। ফলে ৮ উইকেটে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজে শুভ সূচনা করে বাংলাদেশ।

    জিম্বাবুয়ের সিকান্দার রাজা নেন দুই উইকেট।

    তামিম ইকবাল ৮৪ রানে অপরাজিত ছিলেন। তার ৯৩ বলের ইনিংসে ৮টি বাউন্ডারি ও একটি ছক্কার মার রয়েছে। এদিন তামিম ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ৩৯তম অর্ধশত রানের দেখা পান। অপর ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন।

    এর আগ টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৭০ রানে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে। শুরুতেই বল হাতে আক্রমণের দায়িত্বে আসেন বাংলাদেশের স্পিনার সাকিব আল হাসান। প্রথম বলে সলোমন মীরকে এবং ‍তৃতীয় বলে ক্রেইন আরভিনকে সাজঘরে ফেরত পাঠান। সলোমন মীর ও ক্রেইগ আরভিন রানের খাতা খুলতে পারেননি। দলীয় রান তখন মাত্র ২।

    এরপর দলীয় ৩০ রানে হ্যামিলটন মাসাকাদজাকে ফিরিয়ে দেন অধিনায়ক মাশরাফি। ১৫ রান করা মাসাকাদজা মাশরাফির বলে উইকেটের পেছনে মুশফিকুর রহীমের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন।

    দলীয় ৫১ রানে টেইলর এবং ৮১ রানে ওয়েলার বিদায় নিলে পঞ্চম উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। ২৪ রান করা টেইলরের উইকেটটি নেন টাইগার পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। ১৩ রান করা ওয়েলারকে ফিরিয়ে দেন সানজামুল ইসলাম।

    ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে সিকান্দার রাজা পিটার মুরকে সাথে নিয়ে ৫০ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। এটিই জিম্বাবুয়ের ইনিংসে সর্বোচ্চ পার্টনারশিপ। সিকান্দার রাজা ৯৯ বলে ২ চার ও ২ ছক্কায় ৫২ রান করে রান আউট হন। যা জিম্বাবুয়ের পক্ষে আজকের ম্যাচে সর্বোচ্চ স্কোর।

    ১৬১ রানে অধিনায়ক ক্রেমারের আউটের মধ্য দিয়ে সপ্তম উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। ক্রেমার ১২ রানের বেশি এগুতে পারেননি। আর মাত্র ৬ রান যোগ করতেই টাইগার পেসার রুবেল হোসেনের পঞ্চম ওভারের তৃতীয় বলে এক দুর্দান্ত ডেলিভারিতে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেন পিটার মুর। পিটার মুরের ব্যাট থেকে আসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৩ রান। রুবেল ওই ওভারের পঞ্চম বলে চাতারার স্ট্যাম্প ওপড়ে ফেললে নবম উইকেটের পতন ঘটে জিম্বাবুয়ের। রানের খাতা খুলতে পারেননি চাতারা।

    জিম্বাবুয়ের ইনিংসে শেষ পেড়েকটি ঠুকে দেন কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। মোস্তাফিজ তার দশম ওভারের শেষ বলে মুজারাবানিকে বোল্ড করে দিলে ১৭০ রানে অলআউট হন জিম্বাবুয়ে।

    বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সাকিব আল হাসান তিনটি, মোস্তাফিজুর রহমান ও রুবেল হোসেন দুটি করে এবং সানজামুল ইসলাম ও মাশরাফি মর্তুজা একটি করে উইকেট নেন।

    ম্যাচসেরা হন সাকিব আল হাসান।

    আগামীকাল মঙ্গলবার ত্রিদেশীয় সিরিজের কোনো খেলা নেই। ১৭ জানুয়ারি বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে শ্রীলংকা-জিম্বাবুয়ে। খেলাটি শুরু হবে দুপুর ১২-০০টায়।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা