সাদা দাড়ি নিয়ে কাতার বিশ্বকাপ খেলবো: রামোস – BD Sports 24
  • সাদা দাড়ি নিয়ে কাতার বিশ্বকাপ খেলবো: রামোস

    July 3rd, 2018

    ক্রীড়া ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    মস্কো, ৩ জুলাই: রাশিয়া বিশ্বকাপের নক আউপ পর্ব থেকে প্রথম ম্যাচেই বিদায় কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না স্প্যানিশ অধিনায়ক সার্জিও রামোস। আর সেই হতাশা থেকেই রামোস বলেছেন, ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ পর্যন্ত তিনি জাতীয় দলে থাকতে চান। তখন বয়স ৩৬ বছর হলেও মুখে সাদা দাড়ি নিয়েই তিনি খেলতে নামবেন।

    ২০১০ সালে আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা (৩৪) ও জেরার্ড পিকেকে (৩১) সাথে নিয়ে বিশ্বকাপ জিতেছিলেন রামোস। এরপর টানা দুটি বিশ্বকাপে হতাশাজনক পারফরমেন্সের পরে ইতোমধ্যেই ইনিয়েস্তা ও পিকে আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষনা দিয়েছেন। তাদের পথ ধরে স্পেনের স্বর্ণযুগের আরো সদস্য ডেভিড সিলভা (৩২), পেপে রাইনাদের (৩৫) যাওয়াও প্রায় নিশ্চিত।

    তবে ৩২ বছর বয়সী রামোস বলেছেন, জাতীয় দলের হয়ে ১৫৬টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতাকে তিনি আরো বাড়াতে চান। একইসাথে তিনি আরো বলেছেন তরুণ খেলোয়াড়রা যাতে উঠে আসে সেইজন্য তিনি সবসময়ই ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছেন। রামোস বলেন, ‘আমি কখনোই খুব বেশি পরিবর্তনের পক্ষে নই। এটা পুরো দলের শেষ হয়ে যাবার সময় নয়। পিকে, ইনিয়েস্তা আমাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। কিন্তু তাদের পেছনে অনেক খেলোয়াড়ই দারুণভাবে উঠে এসেছে। তরুণরা নিজেদের যোগ্যতা দিয়েই এখানে টিকে আছে। আমি আরো কয়েক বছর খেলতে চাই। তবে অত্যন্ত দু:খ নিয়ে রাশিয়া থেকে চলে যাচ্ছি। কাতারে আবারো খেলার লক্ষ্য নিয়েই বাড়ি ফিরছি।’

    উয়েফা নেশন্স লিগকে সামনে রেখে ফার্নান্দো হিয়েরো হয়ত আর জাতীয় দলের কোচ হিসেবে থাকছেন না। কিন্তু স্পেন ও রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক এই খেলোয়াড়ের প্রশংসাই করেছেন রামোস। টুর্নামেন্ট শুরুর মাত্র একদিন আগে আকস্মিকভাবে দলের দায়িত্ব পেয়ে তিনি যেভাবে স্পেনকে সামলেছেন তা অনেকের পক্ষেই হয়ত সম্ভব ছিল না।

    রামোস বলেন, আমরা কোচকে নিয়ে গর্বিত। যে সাহসিকতার সাথে দিনি দলকে সামলেছেন তা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। এই ফলাফল সত্ত্বেও সে তার সেরাটা দিয়েছে। সাবেক খেলোয়াড় হওয়াতে ফার্নান্দোর সাথে আমরা খুবই স্বাচ্ছন্দ্য ছিলাম। এটা আমাদের ওপর নির্ভর করে না, কিন্তু ফার্নান্দো যদি দায়িত্বে থাকে তবে খুব একটা খারাপ হবে না। অধিনায়ক হিসেবে স্প্যানিশ ফুটবলের জন্য যা ভালো সেটাই আমি চাইবো।

    রাশিয়ার বিপক্ষে ১ হাজারেরও বেশি পাস করেছে স্পেন। কিন্তু এর মধ্য থেকে গোলের সুস্পষ্ট সুযোগ খুব কমই বের করতে পেরেছে। পজিশনভিত্তিক এই ধরনের কৌশলে ২০০৮ থেকে ২০১২ পর্যন্ত টানা তিনটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে বিজয়ী হবার পরে বর্তমান যুগে এটা কতটুকু প্রযোজ্য তা নিয়ে ভাববার সময় এসেছে। রামোস অবশ্য বলেছেন, প্রত্যেকেরই আলাদা আলাদা মতামত থাকতে পারে। আমরা দীর্ঘদিন ধরেই এই দর্শনে খেলে আসছি। ফুটবলে ফলাফলই মূখ্য, সে কারণেই এটা নিয়ে বিতর্ক থাকতেই পারে। বাসস।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা