সাফে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি আজ – BD Sports 24
  • সাফে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি আজ

    September 12th, 2018

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ঢাকা, ১২ সেপ্টেম্বর: সাফ সুজুকি কাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে আজ মুখোমুখি হচ্ছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭.৩০টায় শুরু হবে খেলাটি।

    এবারের আসরে ভারত গ্রুপ ‘বি’তে এবং পাকিস্তান গ্রুপ ‘এ’তে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামে। গ্রুপ ‘বি’র চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ভারত এবং গ্রুপ ‘এ’র রানার্স আপ হিসেবে পাকিস্তান সেমিফাইনালে পা রাখে।

    গ্রুপ পর্বে ভারত তাদের প্রথম খেলায় শ্রীলংকাকে ২-০ গোলে এবং দ্বিতীয় খেলায় মালদ্বীপকে ২-০ গোলে পরাজিত করে পূর্ণ ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে সেমির টিকিট পায়।

    অপরদিকে গ্রুপ ‘এ’তে থাকা পাকিস্তান তাদের প্রথম খেলায় শক্তিশালী নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে শুভ সূচনা করে। দ্বিতীয় খেলায় বাংলাদেশের কাছে ১-০ গোলে হেরে যায়। তৃতীয় খেলায় ভুটানকে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করে। ফলে ২ খেলায় ৬ পয়েন্ট নিয়ে গোলপার্থক্যে এগিয়ে থাকায় বাংলাদেশকে পেছনে ফেলে সেমিফাইনালে পৌঁছে।

    এবার দেখা যাক সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে গত ১১টি আসরে ভারত ও পাকিস্তানের সাফল্য কতটুকু। এক্ষেত্রে পাকিস্তানের চেয়ে অনেক অনেক এগিয়ে ভারত। ১১ আসরের সবকটি’রই সেমিফাইনাল খেলেছে ভারত। এর মধ্যে ১০ আসরে ফাইনালে খেলে ৭ বার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কৃতিত্ব দেখায় ভারত। ১৯৯৩, ১৯৯৭, ১৯৯৯, ২০০৫, ২০০৯, ২০১১ ও ২০১৫ সালের আসরে ভারত শিরোপা জয় করে। ১৯৯৫, ২০০৮ ও ২০১৩’র আসরে রানার্স আপ হয় এবং ২০০৩’র আসরে তৃতীয় স্থান অর্জন করে।

    অপরদিকে পাকিস্তান গত ১১ আসরের ১০টিতে অংশ নিয়ে চারবার সেমিফাইনালে খেলে। এর মধ্যে চারবারই পরাজিত হয়ে ফাইনালে যেতে ব্যর্থ হয়। ১৯৯৩, ১৯৯৭, ২০০৩ ও ২০০৫ সালের আসরে পাকিস্তান সেমিফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। সাফে সেরা সাফল্য বলতে ১৯৯৭ সালে তৃতীয় স্থান অর্জন। সেবার তৃতীয়-চতুর্থ স্থান নির্ধারণী ম্যাচে শ্রীলংকাকে ১-০ গোলে হারিয়ে তৃতীয় হয় পাকিস্তান।

    আজ সেমিফাইনালে মুখোমুখি হওয়ার আগে গতকাল বাফুফে ভবনে প্রি-ম্যাচ প্রেস কনফারেন্সে ভারতের সহকারী কোচ ভেংকটেস সাঙ্গা বলেন, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ মানেই উত্তেজনা। পাকিস্তানের চেয়ে শক্তিমত্তার দিক দিয়ে আমরা বেশ এগিয়ে আছি। ২৩ বার সাক্ষাতে আমরা ১৪ বার জয় পেয়েছি পাকিস্তানের বিপক্ষে। আমরা তাদের কাছে হেরেছি ৩ বার। আমরা এবার তরুণ দল নিয়ে সাফে অংশ নিয়েছি। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই আমরা সেমিতে পা রেখেছি।

    প্রতিপক্ষ পাকিস্তান দল সম্পর্কে তিনি বলেন, এবারের পাকিস্তান দলটি ভালো। তারা ফিজিক্যালিও বেশ শক্তিশালী। তবে পাকিস্তানকে হারিয়েই আমরা ফাইনালে যেতে চাই।

    অপরদিকে পাকিস্তানের কোচ হোসে এসিজি নোগুইরা বলেন, ভারতের বিপক্ষে সেমিফাইনাল ম্যাচে লড়াই করার জন্য আমার দলের সবাই পুরোপুরি ফিট। দলে কোনো ইনজুরি নেই। এ মুহূর্তে ভারত ফিফা র‌্যাংকিংয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে। নিঃসন্দেহে ভারত শক্তিশালী দল। তাদের বিপক্ষে জয় পাওয়াটা কঠিনই হবে। তবে আমি আশাবাদী।

    পাকিস্তানের অধিনায়ক সাদ্দাম হোসেন বলেন, আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ এটি। ১৩ বছর পর সাফের সেমিতে খেলছি আমরা। দলের সকল খেলোয়াড় ভারতের বিপক্ষে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। আমরা ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো ফাইনালে যেতে চাই।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

    No posts here...

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা

    No posts here...