সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে চায় ইংল্যান্ড: সিরিজ বাঁচানোর লড়াই ভারতের – BD Sports 24
  • সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে চায় ইংল্যান্ড: সিরিজ বাঁচানোর লড়াই ভারতের

    August 17th, 2018

    ক্রীড়া ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    নটিংহাম, ১৭ আগস্ট: ভারতের বিপক্ষে প্রথম দু’ম্যাচ জিতে সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে ইংল্যান্ড। তাই তৃতীয় টেস্ট জিতলেই দু’ম্যাচ বাকি রেখেই সিরিজ জিতে নিবে ইংলিশরা। তবে তৃতীয় ম্যাচ জিতে বা ড্র করে সিরিজ বাঁচিয়ে রাখতে মরিয়া ভারত। তাই সিরিজ নিশ্চিত করার লক্ষ্য নিয়ে স্বাগতিক ইংল্যান্ড এবং সিরিজে টিকে থাকার লক্ষ্যে তৃতীয় টেস্টে মাঠে নামছে সফরকারী ভারত। নটিংহামে আগামীকাল বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

    সিরিজ শুরুর আগেই জমজমাট লড়াইয়ের আভাস দিয়েছিলো ইংল্যান্ড ও ভারত। বার্মিংহামে সিরিজের প্রথম টেস্টে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সমানতালে লড়াই করে ভারত। প্রথম ইনিংসে ২৮৭ রান করে ইংল্যান্ড।

    জবাবে অধিনায়ক বিরাট কোহলির ১৪৯ রানের সুবাদে প্রথম ইনিংসে ভারতের সংগ্রহ ছিল ২৭৪ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতে নেমে ভারতীয় বোলারদের তোপের মুখে পড়ে ১৮০ রানে গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ড। ফলে ম্যাচ জয়ের জন্য ১৯৪ রানের টার্গেট পায় ভারত। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় সেই টার্গেট স্পর্শ করতে পারেনি টিম ইন্ডিয়া। ১৬২ রানেই থমকে যায় ভারতের ইনিংস। ফলে ৩১ রানের জয় নিয়ে সিরিজে শুভ সূচনা করে জো রুটের দল।

    প্রথম টেস্টে লড়াই করলেও লর্ডসে দ্বিতীয় টেস্টে ভারত ছিলো একদম নিষ্প্রভ। ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা নিজেদের ব্যর্থতার সবটুকুই প্রদর্শন করেছেন ক্রিকেটের তীর্থ ভূমি লর্ডসে। ইংলিশ পেস আক্রমণে ছারখাড় হয়ে দুই ইনিংসে যথাক্রমে ১০৭ ও ১৩০ রানে অলআউট হয় ভারত। এর আগে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটে ৩৯৬ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে ইংল্যান্ড। ফলে ইনিংস ১৫৯ রানে ম্যাচ জিতে নেয় ইংলিশরা। টানা দু’জয়ে সিরিজে ডাবল লিড পায় রুট-অ্যান্ডারসনরা।

    ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে সিরিজ জয়ের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে ইংল্যান্ড। নটিংহামের ট্রেন্ট ব্রিজে ২২টি টেস্ট জয়ের রেকর্ড রয়েছে ইংলিশরা। তবে এখানে সর্বশেষ লড়াইয়ে হারের লজ্জা রয়েছে ইংল্যান্ডের। গেল বছরের জুলাইয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৩৪০ রানের বড় ব্যবধানে হারে ইংলিশরা।

    তবে এসব পরিসংখ্যান খুব বেশি গুরুত্ব বহন করছে না ইংল্যান্ড উইকেটরক্ষক জনি বেয়ারস্টোর কাছে। বর্তমান ফর্মকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন তিনি। লর্ডস টেস্টে ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে ক্রিস ওকসের সাথে ১৮৯ রানের জুটি গড়া বেয়ারস্টো বলেন, ‘দেশের মাটিতে আমাদের পারফরমেন্স বরাবরই ভালো। সিরিজে প্রথম দু’ম্যাচেই আমরা দুর্দান্ত পারফরমেন্স করেছি। বিশ্বের সেরা দলের বিপক্ষে এমন পারফরমেন্স সত্যিই প্রশংসনীয়। প্রথম টেস্টে ভারত সমানতালে লড়েছে। কিন্তু দ্বিতীয় টেস্টে পারেনি। এতেই বুঝা যায় আমরা ভালো পারফরমেন্স করেছি। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে হবে আমাদের। কারণ আমাদের প্রধান লক্ষ্য সিরিজ জয়। এই লক্ষ্য পূরণের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে আমরা। তৃতীয় টেস্ট জিতে আমরা সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে চাই। প্রতিপক্ষকে কোনো প্রকার ছাড় দিতে চাই না আমরা।’

    নটিংহামে সিরিজ জয় করতে চান ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট। তাই ভারতের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক ক্রিকেটে হুশিয়ার দিয়ে রাখলেন রুট। তিনি বলেন, ‘লর্ডসে যেভাবে ভারতকে আমরা বিধ্বস্ত করেছি। ঠিক সেভাবে পরিকল্পনা অনুযায়ী পরের টেস্টেও খেলতে চাই আমরা। আমাদের প্রথম লক্ষ্য ছিলো সিরিজ জয়। এখন আমরা ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে। এখনও সিরিজের তিনটি ম্যাচ বাকি রয়েছে। শেষ দুই ম্যাচ নিয়ে আমাদের এখন চিন্তা করার সময় নয়। আমাদের আসল লক্ষ্য তৃতীয় টেস্ট। এই ম্যাচ জিতেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে চাই আমরা।’

    প্রথম দুই টেস্ট হারের পেছনে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা স্পষ্ট। বিশেষভাবে দ্বিতীয় টেস্টে, যাচ্ছেতাই ব্যাটিং পারফরমেন্স ছিলো ধাওয়ান-রাহানে-রাহুলদের। তাই ব্যাটসম্যানদের উপর চটেছেন ভারত কোচ রবি শাস্ত্রী। উইকেট টিকে থাকার পরামর্শ দিলেন তিনি, ‘প্রথম দু’টেস্টে আমাদের ব্যাটসম্যানরা যেভাবে ব্যাটিং করেছে সেটা তাদের মানায় না। উইকেট পড়ে থাকার মানসিকতা দেখাতে হবে। বড় ইনিংস খেলার জন্য এই মানসিকতাই সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।’

    ইংল্যান্ডের কন্ডিশনে খেলাটা সবসময়ই কঠিন। তারপরও এই পরিস্থিতিতেই ব্যাটসম্যানদের জ্বলে উঠার আহ্বান জানালেন শাস্ত্রী, ‘এমন কন্ডিশনে খেলাটা কঠিন। তারপরও এখানেই ভালো খেলতে হবে। অতীতেও ভারতের অনেক ব্যাটসম্যানই বড় ইনিংস খেলেছে এবং ভারতকে ম্যাচ জিতিয়েছে। আর এখানেই নিজেকে সেরা হিসেবে প্রমাণ করার সুবর্ণ সুযোগ। কারণ পরিস্থিতি যখন কঠিন হয়ে উঠে, তখনই বুঝা যায় কতটা শক্তিশালী তোমার চরিত্র, কতটা দক্ষ ব্যাটসম্যান তুমি।’

    শাস্ত্রীর সাথে এক মত পোষণ করলেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিও। দলের ব্যাটসম্যানদের মানসিকভাবে দৃঢ় হতে বললেন ভারত দলপতি। তিনি বলেন, ‘এই ধরনের কঠিন পরিস্থিতিতে মানসিক দৃঢ়তা দেখাতে হবে। মানসিক শক্তি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। টেকনিক যখন কাজে দেয় না, তখন পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনতে হবে। বড় ইনিংস খেলার জন্য নিজেকে স্থির করতে হবে। মানসিকভাবে নিজেকে তৈরি করতে হবে। এছাড়া আর কোনো পথ খোলা নেই। কারণ আমরা এখন খাদের কিনারায় রয়েছি। সিরিজ বাঁচাতে আমাদের ঘুরে দাঁড়াতে হবে। ব্যাটসম্যানদের বড় ইনিংস খেলতে হবে। বোলাররা তাদের কাজ যথাযথভাবে পালন করছে।’

    নটিংহামের ট্রেন্টব্রিজে ভারতের রেকর্ড কিছুটা ভালো। এখন পর্যন্ত ৬টি টেস্টে ২ হার, ১ জয় ও ৩ ড্র করে ভারত। ২০১৪ সালের সফরে সিরিজের প্রথম টেস্টটি ড্র হয়। বাসস।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/এমএকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা