হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়ালো শ্রীলংকা – BD Sports 24
  • হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়ালো শ্রীলংকা

    August 8th, 2018

    ক্রীড়া ডেস্ক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    ক্যান্ডি (শ্রীলংকা), ৮ আগস্ট: দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৫ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম তিনটিতে হেরে আগেই সিরিজ হাতছাড়া করে দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলংকা। আজ বৃষ্টিবিঘ্নিত চতুর্থ ওয়ানডেতে ডি/এল মেথডে ৩ রানের জয়ে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়াতে সক্ষম হয় শ্রীলংকা। এরফলে ৪ ম্যাচ শেষে সিরিজে ৩-১এ এগিয়ে থাকলো দক্ষিণ আফ্রিকা।

    বৃষ্টির কারণে শ্রীলংকার ইনিংসের সময় তিনবার করে ওভার কর্তন করে ৩৯ ওভার করে খেলার সিদ্ধান্ত নেন আম্পায়াররা। ৩৯ ওভারে ৭ উইকেটে ৩০৬ রানের বিশাল স্কোর গড়ে লঙ্কানরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২ ওভার খেলার পর বিনা উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকা স্কোরবোর্ডে জমা করে ২১ রান। এমন সময় ক্যান্ডিতে আবারও বৃষ্টি নামলে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। এক ঘণ্টারও বেশি সময় পর খেলা শুরুর সিদ্ধান্ত নেন আম্পায়াররা। সেইসাথে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২১ ওভারে ১৯১ রানে জয়ের নতুন টার্গেট দেয়া হয়।

    প্রথমদিকে ঝড়ো গতিতেই রান তুলছিলো প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু লঙ্কান বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শেষ ওভারের নাটকে আর কুলিয়ে উঠতে পারেনি সফরকারীরা। নির্ধারিত ২১ ওভারে প্রোটিয়াদের ইনিংস ৯ উইকেটে ১৮৭ রান থামলে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ৩ রানের জয় পায় শ্রীলংকা। ফলে হোয়াইটওয়ামের লজ্জার হাত থেকে বেঁচে যায় ম্যাথুজ বাহিনী।

    শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রোটিয়াদের প্রয়োজন ছিল ৮ রান। ক্রিজে ছিলেন মারকুটে ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলার। অপরদিকে বোলার ছিলেন লঙ্কান পেসার সুরঙ্গা লাকমাল। প্রথম বলে কোনো রান নিতে পারেননি মিলার। দ্বিতীয় বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেন মিলার। এরপর শেষ ব্যাটসম্যান ক্রিজে আসেন লাঙ্গি এনগিদি। তৃতীয় বলে ১ রান নেন এনগিদি। চতুর্থ বলে দালা কোনো রান নিতে পারেননি। পঞ্চম বলে ২ এবং ষষ্ঠ বলে ১ রান নেয়ায় জয়ের কাছাকাছি গিয়ে জয়লাভে ব্যর্থ হন দক্ষিণ আফ্রিকা।

    দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন হাশিম আমলা। এছাড়া ডুমিনি ৩৮, অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক ২৩, মিলার ২১, ক্লাসেন ১৭ এবং মহারান ১৭ রান করে আউট হন।

    লঙ্কান বোলারদের মধ্যে সুরঙ্গা লাকমাল একাই শিকার করেন ৩ উইকেট। এছাড়া থিসারা পেরেরা দুটি এবং আকিলা ধনঞ্জয়া, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা এবং দাসুন সানাকা একটি করে উইকেট নেন।

    এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বৃষ্টিবিঘ্নিত চতুর্থ ওয়ানডেতে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ৩০৬ রানের বিশাল স্কোর গড়ে স্বাগতিক শ্রীলংকার। বৃষ্টির কারণে তিনবার করে ওভার কমানো হয়। প্রথমে আম্পায়ারদ্বয় ৫ ওভার কমিয়ে খেলা নির্ধারণ করেন ৪৫ ওভারে। পরে আবার বৃষ্টি শুরু হলে আবারও ২ ওভার কমানো হয়। এরপর আবারও বৃষ্টি নামলে ৩৯ ওভার করে খেলার সিদ্ধান্ত নেন আম্পায়াররা।

    ৩৯ ওভারে ৭ উইকেটে ৩০৬ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে লঙ্কানরা। দাসুন সানাকা, কুশল পেরেরা এবং থিসারা পেরেরার অর্ধশত রানের ওপর ভর করে ওই স্কোর গড়ে স্বাগতিকরা।

    এর মধ্যে দাসুন সানাকা ৩৪ বলে ৪ বাউন্ডারি ও ৫ ছক্কায় ৬৫ রান করেন। ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটির দেখা পান আজ তিনি। এছাড়া কুশল পেরেরা ১১তম ফিফটির সাহায্যে মাত্র ৩২ বলে ৫১ রান করে আউট হন। থিসারা পেরেরা নবম ফিফটির সাহায্যে ৫১ রানে অপরাজিত থাকেন। উপল থারাঙ্গা ৩৬ এবং উইকেটরক্ষক ডিকবেলার ব্যাট থেকে আসেন ৩৪ রান।

    প্রোটিয়া বোলারদের মধ্যে লাঙ্গি এনগিদি ও ডুমিনি দুটি করে এবং ফেহলুকওয়াও, মালদার ও মহারাজ একটি করে উইকেট শিকার করেন।

    ম্যাচসেরা হন লঙ্কান ক্রিকেটার দাসুন সানাকা।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে


অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন


প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  


ক্রীড়া সাহিত্য

ব্যাডমিন্টন

আরচ্যারি

গল্‌ফ

ভারোত্তোলন

মহিলা ক্রীড়া সংস্থা